শুক্রবার, ০৩ ডিসেম্বর ২০২১, ০৫:০৩ অপরাহ্ন

কুয়াকাটায় দেবালয়ের সম্পত্তি বেহাতের অভিযোগ, রক্ষায় প্রশসনের উদ্যোগ

ভয়েস ডিজিটাল ডেস্ক
  • Update Time : মঙ্গলবার, ২০ জুলাই, ২০২১
  • ৫৬ Time View

‘কুয়াকাটা একটি পর্যটন কেন্দ্র। দেশের বিভিন্ন দেশের মানুষের কাছেও কুয়াকাটার আকর্ষণ রয়েছে জানিয়ে নিউ নিউ  খেইন বলেন, দেবালয় সম্পত্তির উপর দৃষ্টি নন্দন একটি বৌদ্ধ মন্দির নির্মানের জন্য  জেলা প্রশাসকের কাছে আবেদন করেছেন তারা। জেলা প্রশাসক অতন্ত আন্তরিকভাবে সরকারের অর্থায়নে একটি দৃষ্টি নন্দন মন্দির স্থাপনের প্রতিশ্রুতিও দিয়েছেন’

সাগরকন্যা কুয়াকাটায় নৃ-গোষ্ঠী রাখাইন সম্প্রদায়ের শতবছরের পুরানো মন্দিরের জায়গা দখল নিয়ে সেখানে স্থাপনা নির্মাণ করছে একটি স্বাথান্বেষী মহল। বাংলাদেশের অন্যতম পর্যটন কেন্দ্র কুয়াকাটায় যুগ যুগ ধরে বসবাস করে আসছেন রাখাইন সম্প্রদায়।

এই কুয়াকাটায় ৯৯ শতাংশ জমির ওপর প্রায় ১০০ বছরের পুরানো ২০ ফুট লম্বা শায়িত বৌদ্ধ মূর্তি রয়েছে। যা পর্যটকদের অন্যতম আকর্ষণ। অভিযোগ এই মন্দিরটির সম্পত্তি দখন নিয়ে সেখানে অবৈধভাবে স্থাপনা তৈরী করে দখলের পায়তারা করছেন একটি গোষ্ঠী।

এ বিষয়ে বাংলাদেশ কৃষক লীগ কেন্দ্রীয় কমিটির ধর্ম বিষয়ক সহ-সম্পাদক এবং বাংলাদেশ বৌদ্ধ কৃষ্টি প্রচার সংঘ পটুয়াখালী ও বরগুনা জেলার প্রসিডেন্ট নিউ নিউ খেইন অভিযোগ করেন, মন্দিরের জায়গা দখল করে স্থাপনার  বিষয়টি আমরা জেলা প্রশাসককে জানালে তিনি তাৎক্ষনিক কলাপাড়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও এসিল্যান্ডকে এ বিষয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহনের  নির্দেশ দেন। এর জন্য প্রশাসনের কাছে আমরা কৃতজ্ঞ।

কলাপাড়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা গত রবিবার একটি সভা আয়োজন করেন। উক্ত সভায় উপস্থিত ছিলেন, নিউ নিউ খেইন, কলাপাড়া উপজেলার এসিল্যান্ড, কুয়াকাটার এমং তালুকদার, মিস্রী পাড়ার বাবু মংলাচি, গোড়া আমখোলা পাড়ার ইঞ্জিনিয়ার ম্যাথু, বাবু মংচোওয়েন নয়া পাড়ার বাবু বাদল বিশ্বাস এবং যারা জমি দখল করে স্থাপনা তৈরী করছেন তাদের প্রতিনিধি বৃন্দ।

নিউ নিউ খেইন আরও জানান, সভায় সিদ্ধান্ত গৃহিত হয় যে, যারা মন্দিরের জায়গা দখল করে স্থাপনা নির্মাণ করছেন, তাদের বৈধ কাগজপত্র কলাপাড়া উপজেলা এসিল্যান্ড কার্যালয়ে জমা দিতে বলেছেন। দেবালয় সম্পত্তির চুড়ান্তভাবে সীমানা নির্ধারন না হওয়া পর্যন্ত কোনো স্থাপনা তৈরী করা যাবে না বলেও সভায় সিদ্ধান্ত হয়েছে বলে জানান নিউ নিউ খেইন।

উল্লেখ্য, কুয়াকাটা একটি পর্যটন কেন্দ্র। দেশ-বিদেশের  মানুষের কাছেও কুয়াকাটার আকর্ষণ রয়েছে জানিয়ে নিউ নিউ খেইন বলেন, দেবালয় সম্পত্তির উপর দৃষ্টি নন্দন একটি বৌদ্ধ মন্দির নির্মানের জন্য  জেলা প্রশাসকের কাছে আবেদন করেছেন তারা। জেলা প্রশাসক অতন্ত আন্তরিকভাবে সরকারের অর্থায়নে একটি দৃষ্টি নন্দন মন্দির স্থাপনের প্রতিশ্রুতিও দিয়েছেন।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
© All rights reserved © 2017 voiceekattor
কারিগরি সহযোগিতায়: সোহাগ রানা
11223