ঢাকা ১২:৪২ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ০৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ২০ মাঘ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::
Sheikh Hasina : দেশে অনির্বাচিত সরকার আসলে সংবিধান অশুদ্ধ হবে , বইমেলার উদ্বোধন করে শেখ হাসিনা  Underground railway : পাতাল রেলের নির্মাণ কাজের উদ্বোধন ঘিরে সেজেছে পূর্বাঞ্চল Remittance : বছরের শুরুতেই প্রকাসী আয়ের মাথা উঁচু উপস্থিতি Fire at Mongla EPZ : মোংলা ইপিজেডে ব্যাগ কারখানার আগুন নিয়ন্ত্রণে আসেনি Judgment in Bengal : ভাষা শহীদদের সম্মানে বাংলায় রায় দিলেন হাইকোর্ট Taslima Nasreen : বাঙালিরা আমার যত সর্বনাশ করেছে তত আর কেউ করেনি, বললেন তসলিমা February : ভাষা মাস ‘ফেব্রুয়ারি’ Obaidul Quader : বিএনপির দম ফুরানো নীরব পদযাত্রা: ওবায়দুল কাদের Constitution  :  সংবিধানের পঞ্চদশ সংশোধনী অবৈধভাবে  ক্ষমতা দখল বন্ধ করেছে: শেখ হাসিনা  Missile  : মিসাইল ফায়ারিং যুগে বাংলাদেশ

Kidney disease : কিডনি রোগ কোন ব্যক্তি বা পরিবারের একক রোগ নয় : ডা. পার্থ কর্মকার

  • প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৯:১৬:৪০ অপরাহ্ন, রবিবার, ২০ নভেম্বর ২০২২
  • ৭৪ বার পড়া হয়েছে

বাকুড়ায় মানতার সেবার হাত

‘জোর দিলেন স্বাস্থ্যসম্মত জীবনযাপনে। অবহেলা-অবজ্ঞায় জীবনকে পরিচালিত করার খেসারত টানতে হয় গোটা পরিবার তথা সমাজকে। সেই কথাটি বার বার স্মরণ করিয়ে দিলেন মানবিক চিৎিসক ডা. পার্থ কর্মকার’

 

নিজস্ব প্রতিবেদক

কিডনি রোগ শব্দটি উচ্চারণের সঙ্গে সঙ্গে মানুষের মন থেকে অজান্তে দীর্ঘশ্বাস বেড়িয়ে  আসে। এটা স্বাভাবিক, এই রোগটি কোন ব্যক্তির একক রোগ নয়। এটি হচ্ছে পরিবার তথা সামাজিক রোগ। কারণ, কোন ব্যক্তি যদি কিডনি রোগে আক্রান্ত হন, তাহলে তার গোটা পরিবারই ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ার পাশাপাশি সমাজব্যবস্থায় এর প্রভাব পড়ে।

বাকুড়ার জনপথে ডায়াবেটিস, উচ্চরক্ত চাপ এবং কিডনি রোগ নিয়ে সচেতনতার কর্মসূচির অংশ

কলকাতার বিশিষ্ট কিডনি রোগ বিশেষজ্ঞ ডা. প্রার্থ কর্মকার যখন কিডনি রোগের প্রভাবে কোন একটি পরিবার কতটা ক্ষতিগ্রস্ত হতে পারেন, বর্ণায় তুলে আনছিলেন তখন তার মুখায়ব ছিল মলিন। কারণ এই বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক জানেন সারাজীবনের ব্যয়বহুল চিকিৎসা করাতে গিয়ে অর্থনৈতিক ও মানুষিক পরিস্থিতি কতটা নাজুক হতে পারে। সেই বিষয়গুলো পার্থ বাবু যখন অনর্গল বলে যাচ্ছিলেন, তখন মনে হয়েছিল কোন তথ্য চিত্র দেখছি।

ছুটির দিনগুলোতে মানুষের সেবায় নিজেকে নিবেদন করেন ডা. পার্থ কর্মকার

পার্থ বাবু তৃণমূলের চিত্রটিও তুলেন আনেন। কেন রোগটি ছড়াচ্ছে এর নেপথ্যের কারণও জানালেন। জোর দিলেন স্বাস্থ্যসম্মত জীবনযাপনে। অবহেলা-অবজ্ঞায় জীবনকে পরিচালিত করার খেসারত টানতে হয় গোটা পরিবার তথা সমাজকে। সেই কথাটি বার বার স্মরণ করিয়ে দিলেন মানবিক চিৎিসক ডা. পার্থ কর্মকার।

মানুষের ভালোবাসায় সিক্ত ডা. পার্থ কর্মকার

প্রতিরোধে মাঠে নামলেন পার্থ বাবু, কেন ?

সামাজিক দায়বদ্ধতা থেকেই। তিনি সমাজের একটা অংশ। এই সমাজের প্রতি তারও যে দায় এড়াতে পারেন না। এজন্য তৃণমূলকে বেচে নিয়েছেন। কিডনিরোগ সুরক্ষা ও প্রতিরোধে একটি সংগঠন গড়ে তুলেছেন। তার মাধ্যমে উচ্ছ রক্তচাপ, ডায়াবেটিস পরীক্ষা এবং প্রতিরোধ ব্যবস্থায় কর্মসূচির অংশ হিসাবে পশ্চিমবঙ্গের বাকুড়ায় প্রায় ৩০টি গ্রামে বিনাখরচায় স্বাস্থ্যসেবা কর্মসূচি পরিচালনা কুরছেন। যার উপকারভোগী মানুষের সংখ্যা ২৭ হাজারের অধিক।

সবার ওপরে মানুষ সত্য তাহার ওপরে নাই

ডা. পার্থ বাবু জানালেন, তারা গ্রামীন জনগোষ্ঠীর নানারকমের পরীক্ষার পাশাপাশি সচেতনতা কর্মসূচি চালিয়ে যাচ্ছেন। কারো কিডনি রোগ হয়েছে কিনা তা দেখতে এবং কোন রোগ চিহ্নিত হলে, সেই রোগীর চিকিৎসার ব্যবস্থাও তারা করে থাকেন।

আগামী কিস্তিতে আরও বিস্তারিত

কিডনি বিশেষজ্ঞ ডা. পার্থ কর্মকার 

সিরিয়ালের জন্য যোগাযোগা  ৯০০২৫০৯৯০১

 

 

ট্যাগস :

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published.

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপলোডকারীর তথ্য

Sheikh Hasina : দেশে অনির্বাচিত সরকার আসলে সংবিধান অশুদ্ধ হবে , বইমেলার উদ্বোধন করে শেখ হাসিনা 

Home
Account
Cart
Search

Kidney disease : কিডনি রোগ কোন ব্যক্তি বা পরিবারের একক রোগ নয় : ডা. পার্থ কর্মকার

আপডেট সময় : ০৯:১৬:৪০ অপরাহ্ন, রবিবার, ২০ নভেম্বর ২০২২

‘জোর দিলেন স্বাস্থ্যসম্মত জীবনযাপনে। অবহেলা-অবজ্ঞায় জীবনকে পরিচালিত করার খেসারত টানতে হয় গোটা পরিবার তথা সমাজকে। সেই কথাটি বার বার স্মরণ করিয়ে দিলেন মানবিক চিৎিসক ডা. পার্থ কর্মকার’

 

নিজস্ব প্রতিবেদক

কিডনি রোগ শব্দটি উচ্চারণের সঙ্গে সঙ্গে মানুষের মন থেকে অজান্তে দীর্ঘশ্বাস বেড়িয়ে  আসে। এটা স্বাভাবিক, এই রোগটি কোন ব্যক্তির একক রোগ নয়। এটি হচ্ছে পরিবার তথা সামাজিক রোগ। কারণ, কোন ব্যক্তি যদি কিডনি রোগে আক্রান্ত হন, তাহলে তার গোটা পরিবারই ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ার পাশাপাশি সমাজব্যবস্থায় এর প্রভাব পড়ে।

বাকুড়ার জনপথে ডায়াবেটিস, উচ্চরক্ত চাপ এবং কিডনি রোগ নিয়ে সচেতনতার কর্মসূচির অংশ

কলকাতার বিশিষ্ট কিডনি রোগ বিশেষজ্ঞ ডা. প্রার্থ কর্মকার যখন কিডনি রোগের প্রভাবে কোন একটি পরিবার কতটা ক্ষতিগ্রস্ত হতে পারেন, বর্ণায় তুলে আনছিলেন তখন তার মুখায়ব ছিল মলিন। কারণ এই বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক জানেন সারাজীবনের ব্যয়বহুল চিকিৎসা করাতে গিয়ে অর্থনৈতিক ও মানুষিক পরিস্থিতি কতটা নাজুক হতে পারে। সেই বিষয়গুলো পার্থ বাবু যখন অনর্গল বলে যাচ্ছিলেন, তখন মনে হয়েছিল কোন তথ্য চিত্র দেখছি।

ছুটির দিনগুলোতে মানুষের সেবায় নিজেকে নিবেদন করেন ডা. পার্থ কর্মকার

পার্থ বাবু তৃণমূলের চিত্রটিও তুলেন আনেন। কেন রোগটি ছড়াচ্ছে এর নেপথ্যের কারণও জানালেন। জোর দিলেন স্বাস্থ্যসম্মত জীবনযাপনে। অবহেলা-অবজ্ঞায় জীবনকে পরিচালিত করার খেসারত টানতে হয় গোটা পরিবার তথা সমাজকে। সেই কথাটি বার বার স্মরণ করিয়ে দিলেন মানবিক চিৎিসক ডা. পার্থ কর্মকার।

মানুষের ভালোবাসায় সিক্ত ডা. পার্থ কর্মকার

প্রতিরোধে মাঠে নামলেন পার্থ বাবু, কেন ?

সামাজিক দায়বদ্ধতা থেকেই। তিনি সমাজের একটা অংশ। এই সমাজের প্রতি তারও যে দায় এড়াতে পারেন না। এজন্য তৃণমূলকে বেচে নিয়েছেন। কিডনিরোগ সুরক্ষা ও প্রতিরোধে একটি সংগঠন গড়ে তুলেছেন। তার মাধ্যমে উচ্ছ রক্তচাপ, ডায়াবেটিস পরীক্ষা এবং প্রতিরোধ ব্যবস্থায় কর্মসূচির অংশ হিসাবে পশ্চিমবঙ্গের বাকুড়ায় প্রায় ৩০টি গ্রামে বিনাখরচায় স্বাস্থ্যসেবা কর্মসূচি পরিচালনা কুরছেন। যার উপকারভোগী মানুষের সংখ্যা ২৭ হাজারের অধিক।

সবার ওপরে মানুষ সত্য তাহার ওপরে নাই

ডা. পার্থ বাবু জানালেন, তারা গ্রামীন জনগোষ্ঠীর নানারকমের পরীক্ষার পাশাপাশি সচেতনতা কর্মসূচি চালিয়ে যাচ্ছেন। কারো কিডনি রোগ হয়েছে কিনা তা দেখতে এবং কোন রোগ চিহ্নিত হলে, সেই রোগীর চিকিৎসার ব্যবস্থাও তারা করে থাকেন।

আগামী কিস্তিতে আরও বিস্তারিত

কিডনি বিশেষজ্ঞ ডা. পার্থ কর্মকার 

সিরিয়ালের জন্য যোগাযোগা  ৯০০২৫০৯৯০১