ঢাকা ০৬:২৪ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৩০ মে ২০২৪, ১৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::
বিক্রয় উন্মোচন করলো প্রপার্টি বেচাকেনার তথ্যভিত্তিক ওয়েবসাইট ‘প্রপার্টি গাইড বাংলাদেশ শীর্ষস্থান হারালেন সাকিব, র‌্যাংকিংয়ে হৃদয়-তানজিদ-মুস্তাফিজের উন্নতি ত্বক ও চুলের যত্নে নিম পাতার ব্যবহার এপেক্সে নারী-পুরুষ নিয়োগ, কর্মস্থল ঢাকা আড়ংয়ে নারী-পুরুষ নিয়োগ, কর্মস্থল ঢাকা রোহিঙ্গাদের জন্য বিশ্বব্যাংক ৭০০ মিলিয়ন ডলার দিচ্ছে দক্ষিণ কোরিয়ায় ‘মলমূত্র’ বহনকারী বেলুন পাঠাচ্ছে উত্তর কোরিয়া উপজেলা পরিষদ নির্বাচন: তৃতীয় ধাপে বিজয়ী যারা প্রধানমন্ত্রী আগামীকাল রেমালে ক্ষতিগ্রস্ত পটুয়াখালীর কলাপাড়া পরিদর্শন করবেন বাংলাদেশি ব্যবসায়ীর বিদেশে বিনোয়োগের ৭০% ভারতে, কেন্দ্রীয় ব্যাংকের তথ্য

ভারতীয় ধরনের বিরুদ্ধে কার্যকর কোভ্যাক্সিন

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৮:০৭:৪৩ অপরাহ্ন, রবিবার, ২ মে ২০২১ ৭১০ বার পড়া হয়েছে
ভয়েস একাত্তর অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

ভয়েস ডিজিটাল ডেস্ক 

ভারতে পাওয়া করোনার ধরনকে নিষ্ক্রিয় করতে পারে সে দেশেই তৈরি কোভ্যাক্সিন টিকা। যুক্তরাষ্ট্রের চিকিৎসাবিষয়ক প্রধান উপদেষ্টা এবং দেশটির সংক্রামক রোগ বিষয়ক শীর্ষ বিশেষজ্ঞ অ্যান্থনি ফাউচি গত মঙ্গলবার এ কথা জানিয়েছেন।

এক সংবাদ সম্মেলনে ড. ফাউচি বলেন, ‘এ বিষয়ে আমরা প্রতিদিনই অধিকতর তথ্য-উপাত্ত সংগ্রহ করে চলেছি। তবে সাম্প্রতিক তথ্যে দেখা গেছে, বি.১.৬১৭ ধরনকে নিষ্ক্রিয় করতে পারে কোভ্যাক্সিন।’

যারা করোনায় আক্রান্ত হয়েছে এবং যারা কোভ্যাক্সিন টিকা নিয়েছে, তাদের সিরাম পরীক্ষা করে সম্প্রতি পাওয়া তথ্য থেকে বিশেষজ্ঞরা এই সিদ্ধান্তে পৌঁছেছেন বলে ড. ফাউচি জানান। তাঁর মতে, ভারতে কঠিন পরিস্থিতি মোকাবেলায় কোভ্যাক্সিন টিকা অত্যন্ত কার্যকর একটি সমাধান হতে পারে।

নিউ ইয়র্ক টাইমসের গত মঙ্গলবারের এক প্রতিবেদনে বলা হয়, কোভ্যাক্সিন টিকা করোনা রোগীর দেহে অ্যান্টিবডি তৈরিতে সাহায্য করে। ওই অ্যান্টিবডি ভাইরাসের উপরিভাগের প্রোটিনের আবরণ ভেঙে ফেলে। ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব ভাইরোলজি ও ইন্ডিয়ান কাউন্সিল অব মেডিক্যাল রিসার্চের (আইসিএমআর) সঙ্গে মিলে কোভ্যাক্সিন টিকা তৈরি করেছে ভারত বায়োটেক। গত ৩ জানুয়ারি ভারতে জরুরি ব্যবহারের জন্য এই টিকা অনুমোদন দেওয়া হয়। ট্রায়ালের পর এই টিকার কার্যকারিতা ৭৮ শতাংশ বলে দাবি করা হয়েছে।

বিশ্বের অন্তত ১৭টি দেশে করোনার ভারতীয় ধরন পাওয়া গেছে। এ তথ্য নিশ্চিত করেছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডাব্লিউএইচও)। করোনার এ ধরনকে অতি সংক্রামক বলে মনে করা হচ্ছে। ভারতে করোনার সংক্রমণ মারাত্মকভাবে ছড়িয়ে পড়ার ক্ষেত্রে এই ধরন ভূমিকা রাখছে বলে ধারণা করা হচ্ছে। ভারতে সংক্রমণের ভয়াবহ পরিস্থিতি মোকাবেলায় বিভিন্ন দেশ সহায়তা পাঠাতে শুরু করেছে। সূত্র : টাইমস অব ইন্ডিয়া।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published.

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপলোডকারীর তথ্য
ট্যাগস :

ভারতীয় ধরনের বিরুদ্ধে কার্যকর কোভ্যাক্সিন

আপডেট সময় : ০৮:০৭:৪৩ অপরাহ্ন, রবিবার, ২ মে ২০২১

ভয়েস ডিজিটাল ডেস্ক 

ভারতে পাওয়া করোনার ধরনকে নিষ্ক্রিয় করতে পারে সে দেশেই তৈরি কোভ্যাক্সিন টিকা। যুক্তরাষ্ট্রের চিকিৎসাবিষয়ক প্রধান উপদেষ্টা এবং দেশটির সংক্রামক রোগ বিষয়ক শীর্ষ বিশেষজ্ঞ অ্যান্থনি ফাউচি গত মঙ্গলবার এ কথা জানিয়েছেন।

এক সংবাদ সম্মেলনে ড. ফাউচি বলেন, ‘এ বিষয়ে আমরা প্রতিদিনই অধিকতর তথ্য-উপাত্ত সংগ্রহ করে চলেছি। তবে সাম্প্রতিক তথ্যে দেখা গেছে, বি.১.৬১৭ ধরনকে নিষ্ক্রিয় করতে পারে কোভ্যাক্সিন।’

যারা করোনায় আক্রান্ত হয়েছে এবং যারা কোভ্যাক্সিন টিকা নিয়েছে, তাদের সিরাম পরীক্ষা করে সম্প্রতি পাওয়া তথ্য থেকে বিশেষজ্ঞরা এই সিদ্ধান্তে পৌঁছেছেন বলে ড. ফাউচি জানান। তাঁর মতে, ভারতে কঠিন পরিস্থিতি মোকাবেলায় কোভ্যাক্সিন টিকা অত্যন্ত কার্যকর একটি সমাধান হতে পারে।

নিউ ইয়র্ক টাইমসের গত মঙ্গলবারের এক প্রতিবেদনে বলা হয়, কোভ্যাক্সিন টিকা করোনা রোগীর দেহে অ্যান্টিবডি তৈরিতে সাহায্য করে। ওই অ্যান্টিবডি ভাইরাসের উপরিভাগের প্রোটিনের আবরণ ভেঙে ফেলে। ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব ভাইরোলজি ও ইন্ডিয়ান কাউন্সিল অব মেডিক্যাল রিসার্চের (আইসিএমআর) সঙ্গে মিলে কোভ্যাক্সিন টিকা তৈরি করেছে ভারত বায়োটেক। গত ৩ জানুয়ারি ভারতে জরুরি ব্যবহারের জন্য এই টিকা অনুমোদন দেওয়া হয়। ট্রায়ালের পর এই টিকার কার্যকারিতা ৭৮ শতাংশ বলে দাবি করা হয়েছে।

বিশ্বের অন্তত ১৭টি দেশে করোনার ভারতীয় ধরন পাওয়া গেছে। এ তথ্য নিশ্চিত করেছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডাব্লিউএইচও)। করোনার এ ধরনকে অতি সংক্রামক বলে মনে করা হচ্ছে। ভারতে করোনার সংক্রমণ মারাত্মকভাবে ছড়িয়ে পড়ার ক্ষেত্রে এই ধরন ভূমিকা রাখছে বলে ধারণা করা হচ্ছে। ভারতে সংক্রমণের ভয়াবহ পরিস্থিতি মোকাবেলায় বিভিন্ন দেশ সহায়তা পাঠাতে শুরু করেছে। সূত্র : টাইমস অব ইন্ডিয়া।