ঢাকা ০৮:৪৯ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৭ মে ২০২৪, ১৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ভাষা ও নিরাত্তার কারণে রোহিঙ্গা শিবিরে ডেঙ্গু ব্যবস্থাপনা কঠিন: স্বাস্থ্য অধিদপ্তর

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৪:৪৭:৫৫ অপরাহ্ন, রবিবার, ২৮ মে ২০২৩ ৬৪ বার পড়া হয়েছে

ছবি সংগ্রহ

ভয়েস একাত্তর অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

অনলাইন ডেস্ক  

রোহিঙ্গা ক্যাম্পে মানুষের ঘনত্ব বেশি এবং পানি সংকটের কারণে দীর্ঘ সময় ধরে  পানি পাত্রে জমিয়ে রাখার কারণে মশা জন্ম নেয়।  ভাষাগত সমস্যা এবং ক্যাম্পের ভেতরে প্রবেশ নিয়ে সমস্যার কারণে নিয়ন্ত্রণ করা কঠিন হচ্ছে। স্থানীয় উপজেলা হেলথ কমপ্লেক্সের টিমকে সঙ্গে নিয়ে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর  কাজ করে চলেছে।

রোহিঙ্গা ক্যাম্পে চলতি বছরে ১ হাজার ৬৬ জন ডেঙ্গু রোগী শনাক্ত হয়েছেন। রবিবার ঢাকার স্বাস্থ্য অধিদপ্তরে ডেঙ্গু নিয়ন্ত্রণ সম্পর্কিত সংবাদ সম্মেলনে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের রোগ নিয়ন্ত্রণ শাখার পরিচালক নাজমুল ইসলাম এ কথা জানান।

নাজমুল ইসলাম  বলেন, রোহিঙ্গা ক্যাম্পে ১ হাজার ৬৬ জন ডেঙ্গু রোগী শনাক্ত হয়েছেন। তবে নিরাপত্তা জনিত কারণে সেখানে ডেঙ্গু ব্যবস্থাপনা কঠিন।

নাজমুল ইসলাম পরিসংখ্যানের কথা উল্লেখ করে বলেন, ঢাকা মহানগরে দক্ষিণে নগরায়ণের কারণে ঢাকা রোগীর সংখ্যা বেশি। আমাদেরকে পরিসংখ্যানের নাতিাকিয়ে ডেঙ্গু নিয়ন্ত্রণে গুরুত্ব দিতে হবে।

আমরা ডেঙ্গু নিয়ন্ত্রণে ঢাকার শহরে ৯ ধরনের গবেষণা করে থাকি। এসব গবেষণার মাধ্যমে ডেঙ্গুর পরিস্থিতি দেখি এবং পরামর্শ ও চিকিৎসা দিয়ে থাকি।

 

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published.

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপলোডকারীর তথ্য

ভাষা ও নিরাত্তার কারণে রোহিঙ্গা শিবিরে ডেঙ্গু ব্যবস্থাপনা কঠিন: স্বাস্থ্য অধিদপ্তর

আপডেট সময় : ০৪:৪৭:৫৫ অপরাহ্ন, রবিবার, ২৮ মে ২০২৩

অনলাইন ডেস্ক  

রোহিঙ্গা ক্যাম্পে মানুষের ঘনত্ব বেশি এবং পানি সংকটের কারণে দীর্ঘ সময় ধরে  পানি পাত্রে জমিয়ে রাখার কারণে মশা জন্ম নেয়।  ভাষাগত সমস্যা এবং ক্যাম্পের ভেতরে প্রবেশ নিয়ে সমস্যার কারণে নিয়ন্ত্রণ করা কঠিন হচ্ছে। স্থানীয় উপজেলা হেলথ কমপ্লেক্সের টিমকে সঙ্গে নিয়ে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর  কাজ করে চলেছে।

রোহিঙ্গা ক্যাম্পে চলতি বছরে ১ হাজার ৬৬ জন ডেঙ্গু রোগী শনাক্ত হয়েছেন। রবিবার ঢাকার স্বাস্থ্য অধিদপ্তরে ডেঙ্গু নিয়ন্ত্রণ সম্পর্কিত সংবাদ সম্মেলনে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের রোগ নিয়ন্ত্রণ শাখার পরিচালক নাজমুল ইসলাম এ কথা জানান।

নাজমুল ইসলাম  বলেন, রোহিঙ্গা ক্যাম্পে ১ হাজার ৬৬ জন ডেঙ্গু রোগী শনাক্ত হয়েছেন। তবে নিরাপত্তা জনিত কারণে সেখানে ডেঙ্গু ব্যবস্থাপনা কঠিন।

নাজমুল ইসলাম পরিসংখ্যানের কথা উল্লেখ করে বলেন, ঢাকা মহানগরে দক্ষিণে নগরায়ণের কারণে ঢাকা রোগীর সংখ্যা বেশি। আমাদেরকে পরিসংখ্যানের নাতিাকিয়ে ডেঙ্গু নিয়ন্ত্রণে গুরুত্ব দিতে হবে।

আমরা ডেঙ্গু নিয়ন্ত্রণে ঢাকার শহরে ৯ ধরনের গবেষণা করে থাকি। এসব গবেষণার মাধ্যমে ডেঙ্গুর পরিস্থিতি দেখি এবং পরামর্শ ও চিকিৎসা দিয়ে থাকি।