ঢাকা ১০:০৪ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৩০ নভেম্বর ২০২৩, ১৬ অগ্রহায়ণ ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

উৎসবে বিভিন্ন দেশে পণ্যের বড় ছাড় থাকলেও বাংলাদেশে তার উল্টো

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৪:১৬:৫৮ অপরাহ্ন, বুধবার, ১৫ মার্চ ২০২৩ ৫৫ বার পড়া হয়েছে
ভয়েস একাত্তর অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

নিজস্ব প্রতিনিধি, ঢাকা

উৎসব উপলক্ষ্যে পৃথিবীর বিভিন্ন দেশে নানা পণ্যের বড় ছাড় থাকলেও বাংলাদেশে তার উল্টো। আসন্ন রমজান মাসে ব্যবসায়ীদের সংযমী হবার আহ্বান জানিয়েছেন বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুন্শি।

তিনি জানান, রমজান ঘিরে নিত্যপণ্য সংকটের কোনো আশঙ্কা নেই। কোনো পণ্যের ঘাটতি নেই। চাহিদার তুলনায় পণ্য মজুত যথেষ্ট এবং সরবরাহও স্বাভাবিক। কোন ভোক্তা যদি এক সঙ্গে অধিক পরিমাণে পণ্য না কেনেন, তাহলে বাজারে পণ্যের ওপর চাপ পড়বে না। পাশাপাশি দামও থাকবে স্থিতিশীল।

বুধবার ঢাকায় বিশ্ব ভোক্তা অধিকার দিবসের আলোচনা সভায় এসব কথা বলেন বাণিজ্যমন্ত্রী। তিনি বলেন, বৈশ্বিক পরিস্থিতির কারণে বাজারে বেশকিছু পণ্যের দাম বেশি। আর এ সংকটে কিছু সুযোগসন্ধানী ব্যবসায়ী অবৈধভাবে পণ্য মজুত করে বাজার আরও অস্থিতিশীল করার চেষ্টা করছেন।

এমন পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়সহ দেশের আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকে কঠোর থাকার পরামর্শ দেন মন্ত্রী।

সঠিক মূল্যে পণ্য বিক্রির বিষয়ে বাজার ব্যবস্থাপনা কমিটিগুলোকে সতর্ক করা হয়েছে জানিয়ে বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, বাজার ব্যবস্থাপনা কমিটিগুলো রমজানে দায়িত্বশীল ভূমিকা পালন করবে। পণ্য কেনার পর ভোক্তাকে বিক্রির রসিদ দিতে হবে। রসিদ না দেয়ার অভিযোগ মিললে আইনি ব্যবস্থা নেয়া হবে। এ বিষয়টি যথাযথভাবে তদারকি করা হবে।

আলোচনা সভায় বিশেষ অতিথি ছিলেন বাংলাদেশ শিল্প ও বণিক সমিতি ফেডারেশনের (এফবিসিসিআই) সভাপতি মো. জসিম উদ্দিন ও কনজুমারস অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশের সভাপতি গোলাম রহমান। এছাড়া বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব তপন কান্তি ঘোষের সভাপতিত্বে জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদফতারের মহাপরিচালক এ. এইচ. এম. সফিকুজ্জামান উপস্থিত ছিলেন।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published.

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপলোডকারীর তথ্য

উৎসবে বিভিন্ন দেশে পণ্যের বড় ছাড় থাকলেও বাংলাদেশে তার উল্টো

আপডেট সময় : ০৪:১৬:৫৮ অপরাহ্ন, বুধবার, ১৫ মার্চ ২০২৩

নিজস্ব প্রতিনিধি, ঢাকা

উৎসব উপলক্ষ্যে পৃথিবীর বিভিন্ন দেশে নানা পণ্যের বড় ছাড় থাকলেও বাংলাদেশে তার উল্টো। আসন্ন রমজান মাসে ব্যবসায়ীদের সংযমী হবার আহ্বান জানিয়েছেন বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুন্শি।

তিনি জানান, রমজান ঘিরে নিত্যপণ্য সংকটের কোনো আশঙ্কা নেই। কোনো পণ্যের ঘাটতি নেই। চাহিদার তুলনায় পণ্য মজুত যথেষ্ট এবং সরবরাহও স্বাভাবিক। কোন ভোক্তা যদি এক সঙ্গে অধিক পরিমাণে পণ্য না কেনেন, তাহলে বাজারে পণ্যের ওপর চাপ পড়বে না। পাশাপাশি দামও থাকবে স্থিতিশীল।

বুধবার ঢাকায় বিশ্ব ভোক্তা অধিকার দিবসের আলোচনা সভায় এসব কথা বলেন বাণিজ্যমন্ত্রী। তিনি বলেন, বৈশ্বিক পরিস্থিতির কারণে বাজারে বেশকিছু পণ্যের দাম বেশি। আর এ সংকটে কিছু সুযোগসন্ধানী ব্যবসায়ী অবৈধভাবে পণ্য মজুত করে বাজার আরও অস্থিতিশীল করার চেষ্টা করছেন।

এমন পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়সহ দেশের আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকে কঠোর থাকার পরামর্শ দেন মন্ত্রী।

সঠিক মূল্যে পণ্য বিক্রির বিষয়ে বাজার ব্যবস্থাপনা কমিটিগুলোকে সতর্ক করা হয়েছে জানিয়ে বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, বাজার ব্যবস্থাপনা কমিটিগুলো রমজানে দায়িত্বশীল ভূমিকা পালন করবে। পণ্য কেনার পর ভোক্তাকে বিক্রির রসিদ দিতে হবে। রসিদ না দেয়ার অভিযোগ মিললে আইনি ব্যবস্থা নেয়া হবে। এ বিষয়টি যথাযথভাবে তদারকি করা হবে।

আলোচনা সভায় বিশেষ অতিথি ছিলেন বাংলাদেশ শিল্প ও বণিক সমিতি ফেডারেশনের (এফবিসিসিআই) সভাপতি মো. জসিম উদ্দিন ও কনজুমারস অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশের সভাপতি গোলাম রহমান। এছাড়া বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব তপন কান্তি ঘোষের সভাপতিত্বে জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদফতারের মহাপরিচালক এ. এইচ. এম. সফিকুজ্জামান উপস্থিত ছিলেন।