ঢাকা ১০:৪১ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৭ মে ২০২৪, ১৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

লকডাউনে চলাচলে লাগবে ‘মুভমেন্ট পাস’

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৬:৫৮:৩৭ অপরাহ্ন, সোমবার, ১২ এপ্রিল ২০২১ ১৮৮ বার পড়া হয়েছে
ভয়েস একাত্তর অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

ছবি সংগ্রহ

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকা

বাংলাদেশে করোনার লাগামহীন আক্রমণ চলছে। প্রবাসীদের কোয়ারিন্টিন সঠিকভাবে বাস্তাবয়ন সম্ভব না হওয়ায় আফ্রিকা ও যুক্তরাজ্য ভ্যারিয়েন্ট ছড়িয়ে পড়েছে। করোনা রুখতে ৫ থেকে ১১ এপ্রিল সাত দিনের লকডাউন ঘোষণা করে সরকার।

কিন্তু তা সফল হয়নি। তখন থেকেই বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকরা বারবার বলে আসছিলেন, করোনার ভাইরাস মানবদেহে ১৪দিন পর্যন্ত লুকিয়ে থেকে সংক্রমণ ঘটাতে পারে। করোনার লাগাম টানতে কমপক্ষে ১৪ দিনের কঠোর লকডাউন প্রয়োজন।

জনসচেতনতায় পুলিশের প্রচারণা : ছবি সংগ্রহ

বিশেষজ্ঞদের পরামর্শ মেনেই এবারে ১৪ এপ্রিল থেকে সরকারী-বেসরকারী অফিস, ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠান, গণপরিবহন এবং মানুষের চলাচল বন্ধ রেখে আটদিনের কঠোর লকডাউনে যাচ্ছে বাংলাদেশ। এসময় রপ্তানিমুখি শিল্পপ্রতিষ্ঠান খোলা থাকবে। মালিকপক্ষ শতভাগ স্বাস্থ্যবিধি মেনে শিল্পপ্রতিষ্ঠান চালু রাখার দায়িত্ব পালন করবেন।

বন্ধ থাকবে আন্তর্জাতিক ও অভ্যন্তরীণ ফ্লাইট। করোনা সংক্রমণ রুখতে ৩ এপ্রিল থেকে যুক্তরাজ্য ছাড়া ইউরোপের সকল দেশের সঙ্গে আকাশপথে যোগাযোগ বন্ধ রয়েছে। পাশাপাশি আর্জেন্টিনা, বাহরাইন, ব্রাজিল, চিলি, জর্ডান, কুয়েত, লেবানন, পেরু, কাতার, দক্ষিণ আফ্রিকা, তুরস্ক ও উরুগুয়ে সঙ্গেও আকাশপথে যোগাযোগ বন্ধ রেখেছে সরকার।

এবারের কঠোর লকডাউনে এমনটিই থাকবে মতিঝিল  বাণিজ্যিক এলাকা : ছবি সংগ্রহ

এমন পরিস্থিতিতে সোমবার ১৪ থেকে ২১ এপ্রিল পর্যন্ত ঘোষিত কঠোর লকডাউনে বিধি-নিষেধ মানাতে মাঠ পর্যায়ে প্রশাসন ও আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীকে কার্যকর পদক্ষেপ গ্রহণের নির্দেশ দিয়েছেন জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন।

সোমবার এক ভিডিও বার্তায় এই নির্দেশনা দেয়ার কথা জানান। এরই মধ্যে বিধি-নিষেধ আরোপ করে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ প্রজ্ঞাপন জারি করেছে। যেখানে রয়েছে ১৩টি নির্দেশনা। এবারে লকডাউন কার্যকর করতে আটঘাট বেধে মাঠে নামার প্রস্ততি নিয়েছে সরকার। যেকোন মূল্যে লকডাউন বাস্তবায়ন করতে চায় হাসিনা সরকার। এবারের লকডাউনে সাধারণ মানুষের চলাচলে প্রয়োজন হবে মুভমেন্ট পাস।

রাজপথে কোন ছাড় দেবেনা পুলিশ : ছবি সংগ্রহ

মঙ্গলবার বাংলাদেশ পুলিশের তরফে এই সংক্রান্ত একটি অ্যাপস’র উদ্বোধন করবেন পুলিশের মহাপরিদর্শক (আইজিপি) ড. বেনজীর আহমেদ। লকডাউন চলাকালে সবাইকে ঘরে থাকার পরামর্শ দেয়া হয়েছে। করোনা ভ্যাকসিন নিতে ব্যক্তিদের ছাড় দেওয়া হলেও জরুরি প্রয়োজনে বাসা থেকে বের হয়ে কোথাও যেতে হলে লাগবে মুভমেন্ট পাস।

যৌক্তিক কারণ দেখিয়ে অ্যাপে আবেদনের পর মিলবে মুভমেন্ট পাস। মুদি দোকানে কেনাকাটা, কাঁচা বাজার, ওষুধপত্র, চিকিৎসা চাকরি, কৃষিকাজ, পণ্য পরিবহন ও সরবরাহ, ত্রাণ বিতরণ, পাইকারি/খুচরা ক্রয় পর্যটন, মরদেহ সৎকার, ব্যবসা ও অন্যান্য ক্যাটাগরিতে দেওয়া হবে এ পাস। যাদের বাইরে চলাফেরা প্রয়োজন কিন্তু কোনো ক্যাটাগরিতেই পড়েন না তাদের ‘অন্যান্য’ ক্যাটাগরিতে পাস দেওয়ার বিষয়ে বিবেচনা করা হবে।

বাংলাদেশের পুলিশের লোগো : সংগৃহিত

পুলিশ সদর দফতরের মিডিয়া অ্যান্ড পাবলিক রিলেশন্স বিভাগের সহকারী মহাপরিদর্শক (এআইজি) সোহেল রানা সংবাদমাধ্যমকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published.

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপলোডকারীর তথ্য
ট্যাগস :

লকডাউনে চলাচলে লাগবে ‘মুভমেন্ট পাস’

আপডেট সময় : ০৬:৫৮:৩৭ অপরাহ্ন, সোমবার, ১২ এপ্রিল ২০২১

ছবি সংগ্রহ

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকা

বাংলাদেশে করোনার লাগামহীন আক্রমণ চলছে। প্রবাসীদের কোয়ারিন্টিন সঠিকভাবে বাস্তাবয়ন সম্ভব না হওয়ায় আফ্রিকা ও যুক্তরাজ্য ভ্যারিয়েন্ট ছড়িয়ে পড়েছে। করোনা রুখতে ৫ থেকে ১১ এপ্রিল সাত দিনের লকডাউন ঘোষণা করে সরকার।

কিন্তু তা সফল হয়নি। তখন থেকেই বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকরা বারবার বলে আসছিলেন, করোনার ভাইরাস মানবদেহে ১৪দিন পর্যন্ত লুকিয়ে থেকে সংক্রমণ ঘটাতে পারে। করোনার লাগাম টানতে কমপক্ষে ১৪ দিনের কঠোর লকডাউন প্রয়োজন।

জনসচেতনতায় পুলিশের প্রচারণা : ছবি সংগ্রহ

বিশেষজ্ঞদের পরামর্শ মেনেই এবারে ১৪ এপ্রিল থেকে সরকারী-বেসরকারী অফিস, ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠান, গণপরিবহন এবং মানুষের চলাচল বন্ধ রেখে আটদিনের কঠোর লকডাউনে যাচ্ছে বাংলাদেশ। এসময় রপ্তানিমুখি শিল্পপ্রতিষ্ঠান খোলা থাকবে। মালিকপক্ষ শতভাগ স্বাস্থ্যবিধি মেনে শিল্পপ্রতিষ্ঠান চালু রাখার দায়িত্ব পালন করবেন।

বন্ধ থাকবে আন্তর্জাতিক ও অভ্যন্তরীণ ফ্লাইট। করোনা সংক্রমণ রুখতে ৩ এপ্রিল থেকে যুক্তরাজ্য ছাড়া ইউরোপের সকল দেশের সঙ্গে আকাশপথে যোগাযোগ বন্ধ রয়েছে। পাশাপাশি আর্জেন্টিনা, বাহরাইন, ব্রাজিল, চিলি, জর্ডান, কুয়েত, লেবানন, পেরু, কাতার, দক্ষিণ আফ্রিকা, তুরস্ক ও উরুগুয়ে সঙ্গেও আকাশপথে যোগাযোগ বন্ধ রেখেছে সরকার।

এবারের কঠোর লকডাউনে এমনটিই থাকবে মতিঝিল  বাণিজ্যিক এলাকা : ছবি সংগ্রহ

এমন পরিস্থিতিতে সোমবার ১৪ থেকে ২১ এপ্রিল পর্যন্ত ঘোষিত কঠোর লকডাউনে বিধি-নিষেধ মানাতে মাঠ পর্যায়ে প্রশাসন ও আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীকে কার্যকর পদক্ষেপ গ্রহণের নির্দেশ দিয়েছেন জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন।

সোমবার এক ভিডিও বার্তায় এই নির্দেশনা দেয়ার কথা জানান। এরই মধ্যে বিধি-নিষেধ আরোপ করে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ প্রজ্ঞাপন জারি করেছে। যেখানে রয়েছে ১৩টি নির্দেশনা। এবারে লকডাউন কার্যকর করতে আটঘাট বেধে মাঠে নামার প্রস্ততি নিয়েছে সরকার। যেকোন মূল্যে লকডাউন বাস্তবায়ন করতে চায় হাসিনা সরকার। এবারের লকডাউনে সাধারণ মানুষের চলাচলে প্রয়োজন হবে মুভমেন্ট পাস।

রাজপথে কোন ছাড় দেবেনা পুলিশ : ছবি সংগ্রহ

মঙ্গলবার বাংলাদেশ পুলিশের তরফে এই সংক্রান্ত একটি অ্যাপস’র উদ্বোধন করবেন পুলিশের মহাপরিদর্শক (আইজিপি) ড. বেনজীর আহমেদ। লকডাউন চলাকালে সবাইকে ঘরে থাকার পরামর্শ দেয়া হয়েছে। করোনা ভ্যাকসিন নিতে ব্যক্তিদের ছাড় দেওয়া হলেও জরুরি প্রয়োজনে বাসা থেকে বের হয়ে কোথাও যেতে হলে লাগবে মুভমেন্ট পাস।

যৌক্তিক কারণ দেখিয়ে অ্যাপে আবেদনের পর মিলবে মুভমেন্ট পাস। মুদি দোকানে কেনাকাটা, কাঁচা বাজার, ওষুধপত্র, চিকিৎসা চাকরি, কৃষিকাজ, পণ্য পরিবহন ও সরবরাহ, ত্রাণ বিতরণ, পাইকারি/খুচরা ক্রয় পর্যটন, মরদেহ সৎকার, ব্যবসা ও অন্যান্য ক্যাটাগরিতে দেওয়া হবে এ পাস। যাদের বাইরে চলাফেরা প্রয়োজন কিন্তু কোনো ক্যাটাগরিতেই পড়েন না তাদের ‘অন্যান্য’ ক্যাটাগরিতে পাস দেওয়ার বিষয়ে বিবেচনা করা হবে।

বাংলাদেশের পুলিশের লোগো : সংগৃহিত

পুলিশ সদর দফতরের মিডিয়া অ্যান্ড পাবলিক রিলেশন্স বিভাগের সহকারী মহাপরিদর্শক (এআইজি) সোহেল রানা সংবাদমাধ্যমকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।