শুক্রবার, ০৯ ডিসেম্বর ২০২২, ১০:৪২ অপরাহ্ন

militant : জঙ্গি সংশ্লিষ্টতার অভিযোগে ঢাকায় চিকিৎসক আটক

Reporter Name
  • প্রকাশ: বুধবার, ১৪ সেপ্টেম্বর, ২০২২
  • ৩০

ছবি সংগ্রহ

নিজস্ব প্রতিনিধি, ঢাকা

সম্প্রতি বাংলাদেশের কুমিল্লা থেকে সাত কলেজ পড়ুয়া কোচিং যাবার কথা বাড়ি থেকে বেড়িয়ে লাপাত্তা হয়ে যায়। উগ্রবাদে জড়িয়ে কথিত হিজরতের নামে ঘর ছাড়ে সাত তরুণ। তাদের মূলহোতা শাকির বিন ওয়ালী নামের এক চিকিৎসককে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। বুধবার পুলিশের কাউন্টার টেরোরিজম অ্যান্ড ট্রান্সন্যাশনাল ক্রাইম ইউনিটের (সিটিটিসি) প্রধান অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার মো. আসাদুজ্জামান সংবাদমাধ্যমকে এতথ্য নিশ্চিত করেছেন।

মো. আসাদুজ্জামান জানিয়েচেন, গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে ঢাকার মগবাজার থেকে নিষিদ্ধ ঘোষিত জঙ্গি সংগঠন আনসার আল ইসলামের সদস্য আবরুর হক (১৮) গ্রেপ্তারের পর তার দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে চিকিৎসক শাকির বিন ওয়ালিদকে ঢাকার রামপুরা থেকে গ্রেপ্তার করেন তারা।

গ্রেপ্তারকৃত চিকিৎসক শাকিরের মাধ্যমে কুমিল্লার নিখোঁজ সাত কলেজ পড়ুয়া তাওহিদ ও জিহাদের প্রশিক্ষণ দিয়েছিল। শাকির ও তার সহযোগীকে জিজ্ঞাবাদ করা হচ্ছে। জানা গিয়েছে, ইংলিশ মিডিয়ামে পড়ুয়া এসব শিক্ষার্থী আগে থেকেই ধর্মকর্মে জড়িয়ে পড়ে। কলেজ পড়ুয়া হলেও তারা ইসলামি শরিয়া মোতাবেক চলাফেরায় অভ্যস্ত ছিল। নিয়মিত তাবলিগ জামায়াতসহ ধর্মীয় নানা আলোচনায় অংশ নিত। তারা এলাকার ছেলেদের সঙ্গে মিশত না।

অবশ্য শাকিরের বাবা চিকিৎসক এ কে এম ওয়ালী উল্লাহর অভিযোগ রবিবার রামপুরার বাসা থেকে ছেলেকে সিআইডির পরিচয়ে সাদাপোশাকের চার ব্যক্তি তুলে নিয়ে যান। সেদিন রাত ১০টার দিকে এসে শাকিরের মুঠোফোন নিয়ে যান তারা। এখন শাকিরকে জঙ্গি-সংশ্লিষ্টতার অভিযোগে গ্রেপ্তারের কথা জানাল সিটিটিসি।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published.

More News Of This Category
© All rights reserved © 2017 voiceekattor
কারিগরি সহযোগিতায়: সোহাগ রানা
11223