শুক্রবার, ২৫ জুন ২০২১, ০২:৩৫ পূর্বাহ্ন

বড় ধরনের হামলার সক্ষমতা জঙ্গিদের নেই

Reporter Name
  • Update Time : সোমবার, ২৭ জুলাই, ২০২০
  • ২৯৩ Time View

ভয়েস রিপোর্ট
দুই হাজার ষোল সালে গুলশান হামলার পর আইনশৃঙ্খলাবাহিনীর জঙ্গি ডেরা চিহ্নিত এবং পর একের এক অভিযানে জঙ্গিদের মেরুদন্ড ভেঙ্গে গেছে। দেশের অভ্যন্তরে বড় ধরণের হামলা চালানোর সক্ষমতা তারা হারিয়েছে। তারপরও আইনশৃঙ্খলা বাহিনী যে কোন বড় উৎসব সামনে রেখে সতর্কতা অবলম্বন করে আসছেন। যা কিনা তাদের কাজেরই অংশ। এতে করে সুফলও ঘরে তুলছেন আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। মোট কথা জঙ্গি নেটওয়ার্ক আগের যে কোনো সময়ের চেয়ে দুর্বল এমন দাবি পুলিশ সদর দপ্তর এবং গোয়েন্দাদের। ঈদের আগে যাতে মাথাচাড়া দিয়ে ওঠতে না পারে সেই ব্যাপারে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী সতর্ক ও প্রস্তুত রয়েছে।
জঙ্গিদের বিরুদ্ধে নিয়মিত অভিযানের পাশাপাশি আসন্ন ঈদ উপলক্ষে তাদের ব্যাপারে বাড়তি সতর্কতা অবলম্বন করতে পুলিশের সকল ইউনিটকে নির্দেশনা বার্তা পাঠানো হয়েছে পুলিশ সদর দপ্তরের তরফে। আসন্ন ঈদকে সামনে রেখে জঙ্গিরা হামলার পরিকল্পনা করছে-এমন তথ্যের ভিত্তিতে পুলিশের সকল ইউনিটকে সর্বোচ্চ সতর্ক অবস্থানে থাকতে ১৯ জুলাই এই সতর্ক বার্তাটি পুলিশের সকল ইউনিটে পাঠানো হয়েছে।
পুলিশ সদর দফতরের এআইজি (মিডিয়া) সোহেল রানা সংবাদমাধ্যমকে জানিয়েছেন, জঙ্গিবাদ আনেকটা দুর্বল হয়ে গেছে। এটা নিয়ে আতংকিত হওয়ার কিছুই নেই। তাদের নেটওর্য়াক ভেঙে গেছে। জঙ্গিবাদ সম্পূর্ণ নিয়ন্ত্রণে রয়েছে । দেশ ও জনগণের সর্বোচ্চ সুরক্ষা ও কল্যাণ নিশ্চিত করার লক্ষ্যে নূন্যতম কোনো আশঙ্কার সুযোগ আমরা রাখতে চাই না বলেই সংশ্লিষ্ট সকল ইউনিটকে সতর্ক করা হয়েছে বলে জানান এই পুলিশ কর্মকর্তা।

তিনি জানালেন, অতীতে উৎসব বা উপলক্ষে কেন্দ্রিক হামলা আমরা দেখেছি। তাই, নিয়মিত কার্যক্রমের পাশাপাশি এবং এর অংশ হিসেবে আমরা সকল উৎসব এবং জাতীয় গুরুত্বপূর্ণ অনুষ্ঠানের আগে সংশ্লিষ্ট সকল ইউনিটকে বাড়তি সতর্কতা অবলম্বন করতে নির্দেশনা দিয়ে থাকে সদরদপ্তর। এন্টি টেররিজম ইউনিটের (এটিইউ) পুলিশ সুপার (লিগ্যাল এন্ড মিডিয়া) মোহাম্মদ আসলাম খান সংবাদমাধ্যমকে জানান, জঙ্গিদের ব্যাপারে পুলিশ সদর দপ্তর থেকে সতর্ক করে চিঠি দেয়া হয়েছে। এটা আমাদের নিয়মিত অভিযানের অংশ। এ ব্যাপারে আমাদের অভিযান অব্যাহত রয়েছে।
তিনি বলেন, এটাকে ছোট করে দেখার সুযোগ নেই উল্লেখ করে বলেন, বিশ্ব পরিস্থিতি, সামনে আসন্ন ঈদ ও আগস্ট মাস, সবকিছিু মাথায় রেখে অভিযান জোরদার করা হয়েছে। আসন্ন ঈদের আগে কিংবা পড়ে তারা বড় ধরনের হামলা চালাতে পারে। চিঠিতে সন্দেভাজনদের ওপর নজরদারি বাড়াতে, চেকপোস্টে তল্লাশি বাড়ানো, সন্দেহ হলে ব্যাগ-দেহ তল্লাশি করা, সন্দেহজনক এলাকায় ব্লক রেইড করতে সংশ্লিষ্ট ইউনিটগুলোকে নির্দেশ দেয়া হয়েছে।
এদিকে সোমবার ঢাকার ধামরাইয়ে নিষিদ্ধ ঘোষিত জঙ্গি সংগঠন আনসার আল ইসলামের সক্রিয় সদস্য সন্দেহে পাঁচ জনকে আটক করেছে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব)। আটককৃতদের কাছ থেকে উগ্রবাদী বই, লিফলেট, ডিজিটাল কনটেন্টসহ মোবাইল জব্দ করার কথা জানানো হয়েছে।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
© All rights reserved © 2017 voiceekattor
কারিগরি সহযোগিতায়: সোহাগ রানা
11223