বুধবার, ২০ অক্টোবর ২০২১, ১১:১০ অপরাহ্ন

৯৩তম অস্কারে সেরা চলচ্চিত্র ‘নোম্যাডল্যান্ড’নারী-বুড়োদের জয়জয়কার

Reporter Name
  • Update Time : সোমবার, ২৬ এপ্রিল, ২০২১
  • ৬৫ Time View

অস্কার হাতে বিজয়ীরা ইনস্টাগ্রাম

ভয়েস ডিজিটাল ডেস্ক

বেশ কিছু ‘প্রথম’-এর দেখা মিলল ৯৩তম অস্কারে। সেরা ছবি হয়েছে ‘নোম্যাডল্যান্ড’। এই ছবির পরিচালক ক্লোয়ি ঝাওয়ের হাতে উঠেছে সেরা পরিচালকের অস্কার। সেরা অভিনেত্রীর নাম ঘোষণার সময় চীনা এই পরিচালকের চোখ ভরে উঠল জলে। কারণ, সেরা অভিনেত্রী আর কেউ নন, ৬৩ বছর বয়সী ফ্রান্সিস ম্যাকডোম্যান্ড, যিনি একাই টেনে নিয়ে গেছেন ‘নোম্যাডল্যান্ড’ সিনেমাকে। ফ্রান্সিসের সঙ্গে আর যাঁরা মনোনয়ন পেয়েছিলেন, তাঁদের ভেতর ফ্রান্সিস বয়সের মাপে সবার বড়। অন্যরা হলেন ভায়োলা ডেভিস (মা রেইনিস ব্ল্যাক বটম), অ্যান্ড্রা ডে (দ্য ইউনাইটেড স্টেটস ভার্সেস বিল্লি হলিডে), ভ্যানেসা কিরবে (পিসেস অফ আ উইম্যান) ও ক্যারি মুলিগান (প্রমিজিং ইয়াং উম্যান)।

সামনে সেরা অভিনেত্রী, পেছনে সেরা পরিচালকইনস্টাগ্রাম

অস্কার হাতে ফ্রান্সিস ‘কোট’ করলেন শেক্সপিয়ারের ‘ম্যাকবেথ’ থেকে, ‘আমার কিছু বলার নেই। আমার রয়েছে এক ধারালো তলোয়ার। আর সেটিই আমার বর্ণমালা।’ তারপর বলছেন, ‘আপনারা জানেন, আমাদের সেই ধারালো অস্ত্র কী! সেটি আমাদের কাজ, আমাদের অভিনয়। সেটিই যা বলার বলে। আমার আজ তাই কিছু বলার নেই।’ অবশ্য বলবেন কী, অস্কারকে তো রীতিমতো ডালভাত বানিয়ে ফেলেছেন তিনি। এটি তাঁর তৃতীয় অস্কার। ‘থ্রি বিলবোর্ড আউটসাইড এবিং, মিজৌরি’ আর ‘ফার্গো’ ছবিতে অনবদ্য অভিনয়ের জন্য তিনি এই পুরস্কার পান। ‘অলমোস্ট ফেমাস’, ‘নর্থ কান্ট্রি’ আর ‘মিসিসিপি বার্নিং’–এর জন্য আরও তিনবার মনোনয়ন পেয়েছেন তিনি। ফলে ছয়টি মনোনয়ন থেকে তিনটি অস্কার বাড়ি নিয়ে যেতে পেরেছেন তিনি।


সেরা ছবিসহ সেরা পাঁচ বিভাগের বিজয়ীরা ইনস্টাগ্রাম

অন্যদিকে, সেরা অভিনেতার ক্ষেত্রে তো রীতিমতো ইতিহাস গড়েছেন অ্যান্থনি হপকিন্স। বুড়ো হাড়ে ভেলকি দেখিয়েছেন তিনি। ৮৩ বছর বয়সে অস্কার জয় করে ইতিহাসের পাতায় নাম লেখালেন তিনি। অস্কারের ৯৩ বছরের ইতিহাসে এত ‘বুড়ো’ অভিনেতা আর নেই। তিনিই ইতিহাসের সবচেয়ে বুড়ো অস্কারজয়ী।

অস্কারের লালগালিচায় কৃষ্ণাঙ্গ জেনদায়া ইনস্টাগ্রাম

হপকিন্সের বাড়িতে আরও একটি অস্কার আছে। ‘দ্য সাইলেন্স অব দ্য ল্যাম্বস’ ছবিতে হলিউডের বড় পর্দায় অমরত্ব পাওয়া ‘হ্যানিবাল লেকচার’ চরিত্রে অভিনয়ের জন্য সেবার অস্কার জিতেছিলেন তিনি। এই বিভাগের অন্য মনোনয়ন প্রাপ্ত ব্যক্তিরা হলেন চ্যাডউইক বোজম্যান (মা রেইনিজ ব্ল্যাক বটম), রিজ আহমেদ (সাউন্ড অব মেটাল), গ্যারি ওল্ডম্যান (মাঙ্ক) ও স্টিভেন ইয়ুন (মিনারি)।

ইতিহাস গড়েছেন অ্যান্থনি হপকিন্সইনস্টাগ্রাম

এদিকে সেরা সহ-অভিনেত্রীর পুরস্কার হাতে তুললেন ৭৩ বছর বয়সী দক্ষিণ কোরিয়ান অভিনেত্রী ইয়া-জাং উন। ‘মিনারি’ ছবিতে অনবদ্য অভিনয় করে এই পুরস্কার হাতে তুললেন তিনি। এর মাধ্যমে গড়লেন ইতিহাস। কেননা, এর আগে কোনো দক্ষিণ কোরিয়ান অভিনেত্রী পায়নি অস্কারের স্পর্শ। সেরা অভিনেতা ও অভিনেত্রীর বেলায় সে কথা খাটে, এ বেলায়ও অক্ষরে অক্ষরে তা সত্য। তাঁর বিভাগে মনোনয়ন পাওয়া অন্যান্য অভিনেত্রীর তুলনায় বয়সের রাস্তায় তিনিই যে সবচেয়ে এগিয়ে! অন্যান্য মনোনয়ন প্রাপ্তরা হলেন মারিয়া বাকালোভা (বোরাট সাবসিকোয়েন্ট মুভিফিল্ম), গ্লেন ক্লোজ (হিলবিলি এলিজি), অলিভিয়া কোলম্যান (দ্য ফাদার) আর আমান্ডা সাইফ্রায়েড (মাঙ্ক)।

অস্কার হাতে ব্রিটিশ কৃষ্ণাঙ্গ অভিনেতা ড্যানিয়েল কালুইয়াইনস্টাগ্রাম

অন্যদিকে সেরা সহ-অভিনেতার পুরস্কার হাতে তুলেছেন ব্রিটিশ কৃষ্ণাঙ্গ অভিনেতা ড্যানিয়েল কালুইয়া। ‘জুডাস অ্যান্ড দ্য ব্ল্যাক মেসিয়াহ’ ছবিতে অভিনয়ের জন্য এই পুরস্কার ঘরে তোলেন ৩২ বছর বয়সী এই তরুণ অভিনেতা। এই বিভাগে আরও মনোনয়ন পেয়েছিলেন সাশা ব্যারন কোহেন (দ্য ট্রায়াল অব দ্য শিকাগো সেভেন), লেজলি ওডোম জুনিয়র (ওয়ান নাইট ইন মায়ামি), পল রাসি (সাউন্ড অব মেটাল) ও লাকিথ স্ট্যানফিল্ড (জুডাস অ্যান্ড দ্য ব্ল্যাক মেসিয়াহ)। এর আগে ‘গেট আউট’ সিনেমায় অভিনয় করে সেরা অভিনেতা বিভাগে অস্কার মনোনয়ন পেয়েছিলেন। ছিল বাফটা, গোল্ডেন গ্লোব, ক্রিটিক্স চয়েস অ্যাওয়ার্ড। তাই তাঁর হাতে অস্কারটা মানানসই। এদিকে ‘মা রেইনি’স ব্ল্যাক বটম সিনেমার জন্য মিয়া নীল আর জামিকা উইলসনের হাতে উঠেছে সেরা মেকআপ আর হেয়ার স্টাইলের পুরস্কার। এই প্রথম এই বিভাগে দুই কৃষ্ণাঙ্গ নারীর হাতে উঠল এই পুরস্কার। এদিকে জুডাস অ্যান্ড দ্য ব্ল্যাক মেসিয়াহ সিনেমার ‘ফাইট ফর ইউ’ গানে অস্কার হাতে তুলেছেন ২৩ বছর বয়সী মার্কিন কৃষ্ণাঙ্গ গায়িকা হার।

সেরা গায়িকার অস্কার হাতে ২৩ বছর বয়সী হার ইনস্টাগ্রাম

ফ্রান্সিস ম্যাকডোম্যান্ডকে বাদ দিলে এবারের অস্কারের প্রথম পাঁচটি বিভাগে নেই কোন ‘হোয়াইট মার্কিন’। স্যার ফিলিপ অ্যান্থনি হপকিন্স মূলত ব্রিটিশ-আমেরিকান। তাই পুরোপুরি মার্কিন বলা যাবে না তাঁকে। রয়েছেন দুজন এশীয় নারী, চীনের ক্লোয়ি ঝাও আর দক্ষিণ কোরিয়ান অভিনেত্রী ইয়া-জাং উন। সেরা পাঁচের তিনজন ষাটোর্ধ্ব। তাই অস্কারকে ‘বর্ণবাদী’, ‘মার্কিন’ আর ‘পুরুষতান্ত্রিক’ বলে গাল দেওয়ার দিন ফুরিয়ে আসছে। এবারের অস্কার বৈচিত্র্যের রঙে রঙিন।

মিয়া নীল আর জামিকা উইলসনের হাতে উঠেছে সেরা মেকআপ আর হেয়ার স্টাইলের পুরস্কার

মিয়া নীল আর জামিকা উইলসনের হাতে উঠেছে সেরা মেকআপ আর হেয়ার স্টাইলের পুরস্কারইনস্টাগ্রাম
এশীয় তিন নারী এবিসি নেটওয়ার্কের মাধ্যমে সাড়ে তিন ঘণ্টার অনুষ্ঠানটি সরাসরি দেখানো হয়েছে ২২৫টিরও বেশি দেশে। যুক্তরাষ্ট্রের লস অ্যাঞ্জেলেসের ডলবি থিয়েটারে ও ইউনিয়ন স্টেশনে ২৩টি শাখায় পুরস্কার বিতরণের আয়োজন শুরু হয় স্থানীয় সময় ২৫ এপ্রিল বিকেল পাঁচটায়। বাংলাদেশের মানুষ আয়োজনটি উপভোগ করেছে ২৬ এপ্রিল সকাল ছয়টা থেকে।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
© All rights reserved © 2017 voiceekattor
কারিগরি সহযোগিতায়: সোহাগ রানা
11223