ঢাকা ১০:৪৯ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২১ মে ২০২৪, ৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

১০ কোটি চীনা নাগরিক বিষাক্ত পানি পান করছেন : বলছে গবেষণা

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৪:০৮:৪০ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৯ জানুয়ারী ২০২১ ২৫১ বার পড়া হয়েছে
ভয়েস একাত্তর অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

ভয়েস ডিজিটাল ডেস্ক

চীনের সিংসুহুয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের এক গবেষণায় বলা হয়েছে, চীনে প্রায় ১০ কোটি মানুষ যে খাবার পানি পান করছে তাতে নিরাপদ মাত্রার চেয়ে বেশি বিষাক্ত রাসায়নিক রয়েছে। সিংসুহুয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের একটি দল পূর্বে করা গবেষণাগুলোর তথ্য ব্যবহার করে, কাপড় থেকে কীটনাশক পর্যন্ত প্রতিটি ক্ষেত্রে ব্যবহার করা রাসায়নিক পলিফ্লুওরোয়ালকিলসের (পিএফএএস) স্তর পর্যবেক্ষণ করেছে।

দলটি ৬৬টি শহরের ৫২৬টি সরবরাহকারীর পানির নমুনা সংগ্রহ করে তথ্য গবেষণা করেছে। এ অঞ্চলের জনসংখ্যা প্রায় ৪৫ কোটি। গবেষণায় দেখা গেছে, পিএফএএসের ঘনত্ব শহরগুলোর পানিতে ২০ শতাংশেরও বেশি। যেখানে পিএফএএসের সর্বোচ্চ স্বাভাবিক ঘনত্ব ধরা হয় ১৬ শতাংশ।

গবেষকরা জানান, তারা সর্বশেষ অন্তর্দৃষ্টি এবং বিশ্লেষণ পেয়েছেন চীনে হওয়া বড় গবেষণাপত্র ও বিশ্বব্যাপী প্রভাবের নিউজলেটার পর্যালোচনা করে। তবে চীনে জাতীয় সুরক্ষার কোনো মানদণ্ড নেই, তাই এই সমীক্ষা যুক্তরাষ্ট্রের ভার্মন্টের নিয়মকে মানদণ্ড হিসেবে ধরে করা হয়েছে বলেও জানিয়েছেন গবেষকরা।

গবেষণাটি মঙ্গলবার ‘এনভায়রনমেন্টাল সায়েন্স ইউরোপ’ জার্নালে প্রকাশিত হয়েছে। এটি চীনের খাবার পানিতে পিএফএএস স্তর নিয়ে পর্যালোচনা করা প্রথম বিস্তৃত গবেষণা। পিএফএএস উচ্চ মাত্রা থাকা শহরগুলোর মধ্যে পূর্ব চীনের উক্সি, হ্যাংজু এবং সুজহু এবং দক্ষিণাঞ্চলীয় গুয়াংডংয়ের ফোশন শহর রয়েছে। কিন্তু বেইজিং এবং সাংহাইসহ প্রধান শহরগুলোতে এ মাত্রা সীমার মধ্যে রয়েছে।

সাধারণভাবে অন্যান্য অঞ্চলের তুলনায় পূর্ব, দক্ষিণ ও দক্ষিণ-পশ্চিম চীনে পিএফএএসের মাত্রা বেশি পাওয়া গেছে। পূর্ব চীনে পিএফএএসের গড় ঘনত্ব দেশের উত্তরের তুলনায় ২.৬ গুণ বেশি পাওয়া গেছে। এর কারণ হিসেবে গবেষকরা বৃহৎ শিল্প কার্যক্রম ও উচ্চ জনসংখ্যার ঘনত্বকে দায়ী করেছেন।
সূত্র: সাউথ চায়না মর্নিং পোস্ট।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published.

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপলোডকারীর তথ্য
ট্যাগস :

১০ কোটি চীনা নাগরিক বিষাক্ত পানি পান করছেন : বলছে গবেষণা

আপডেট সময় : ০৪:০৮:৪০ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৯ জানুয়ারী ২০২১

ভয়েস ডিজিটাল ডেস্ক

চীনের সিংসুহুয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের এক গবেষণায় বলা হয়েছে, চীনে প্রায় ১০ কোটি মানুষ যে খাবার পানি পান করছে তাতে নিরাপদ মাত্রার চেয়ে বেশি বিষাক্ত রাসায়নিক রয়েছে। সিংসুহুয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের একটি দল পূর্বে করা গবেষণাগুলোর তথ্য ব্যবহার করে, কাপড় থেকে কীটনাশক পর্যন্ত প্রতিটি ক্ষেত্রে ব্যবহার করা রাসায়নিক পলিফ্লুওরোয়ালকিলসের (পিএফএএস) স্তর পর্যবেক্ষণ করেছে।

দলটি ৬৬টি শহরের ৫২৬টি সরবরাহকারীর পানির নমুনা সংগ্রহ করে তথ্য গবেষণা করেছে। এ অঞ্চলের জনসংখ্যা প্রায় ৪৫ কোটি। গবেষণায় দেখা গেছে, পিএফএএসের ঘনত্ব শহরগুলোর পানিতে ২০ শতাংশেরও বেশি। যেখানে পিএফএএসের সর্বোচ্চ স্বাভাবিক ঘনত্ব ধরা হয় ১৬ শতাংশ।

গবেষকরা জানান, তারা সর্বশেষ অন্তর্দৃষ্টি এবং বিশ্লেষণ পেয়েছেন চীনে হওয়া বড় গবেষণাপত্র ও বিশ্বব্যাপী প্রভাবের নিউজলেটার পর্যালোচনা করে। তবে চীনে জাতীয় সুরক্ষার কোনো মানদণ্ড নেই, তাই এই সমীক্ষা যুক্তরাষ্ট্রের ভার্মন্টের নিয়মকে মানদণ্ড হিসেবে ধরে করা হয়েছে বলেও জানিয়েছেন গবেষকরা।

গবেষণাটি মঙ্গলবার ‘এনভায়রনমেন্টাল সায়েন্স ইউরোপ’ জার্নালে প্রকাশিত হয়েছে। এটি চীনের খাবার পানিতে পিএফএএস স্তর নিয়ে পর্যালোচনা করা প্রথম বিস্তৃত গবেষণা। পিএফএএস উচ্চ মাত্রা থাকা শহরগুলোর মধ্যে পূর্ব চীনের উক্সি, হ্যাংজু এবং সুজহু এবং দক্ষিণাঞ্চলীয় গুয়াংডংয়ের ফোশন শহর রয়েছে। কিন্তু বেইজিং এবং সাংহাইসহ প্রধান শহরগুলোতে এ মাত্রা সীমার মধ্যে রয়েছে।

সাধারণভাবে অন্যান্য অঞ্চলের তুলনায় পূর্ব, দক্ষিণ ও দক্ষিণ-পশ্চিম চীনে পিএফএএসের মাত্রা বেশি পাওয়া গেছে। পূর্ব চীনে পিএফএএসের গড় ঘনত্ব দেশের উত্তরের তুলনায় ২.৬ গুণ বেশি পাওয়া গেছে। এর কারণ হিসেবে গবেষকরা বৃহৎ শিল্প কার্যক্রম ও উচ্চ জনসংখ্যার ঘনত্বকে দায়ী করেছেন।
সূত্র: সাউথ চায়না মর্নিং পোস্ট।