ঢাকা ০৬:০৬ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৩০ মে ২০২৪, ১৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::
বিক্রয় উন্মোচন করলো প্রপার্টি বেচাকেনার তথ্যভিত্তিক ওয়েবসাইট ‘প্রপার্টি গাইড বাংলাদেশ শীর্ষস্থান হারালেন সাকিব, র‌্যাংকিংয়ে হৃদয়-তানজিদ-মুস্তাফিজের উন্নতি ত্বক ও চুলের যত্নে নিম পাতার ব্যবহার এপেক্সে নারী-পুরুষ নিয়োগ, কর্মস্থল ঢাকা আড়ংয়ে নারী-পুরুষ নিয়োগ, কর্মস্থল ঢাকা রোহিঙ্গাদের জন্য বিশ্বব্যাংক ৭০০ মিলিয়ন ডলার দিচ্ছে দক্ষিণ কোরিয়ায় ‘মলমূত্র’ বহনকারী বেলুন পাঠাচ্ছে উত্তর কোরিয়া উপজেলা পরিষদ নির্বাচন: তৃতীয় ধাপে বিজয়ী যারা প্রধানমন্ত্রী আগামীকাল রেমালে ক্ষতিগ্রস্ত পটুয়াখালীর কলাপাড়া পরিদর্শন করবেন বাংলাদেশি ব্যবসায়ীর বিদেশে বিনোয়োগের ৭০% ভারতে, কেন্দ্রীয় ব্যাংকের তথ্য

হিজাব নিয়ে বিতর্কিত মন্তব্য : পাকিস্তানে নিযুক্ত চীনা কর্মকর্তার সমালোচনার ঝড়

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ১০:২৩:১৪ অপরাহ্ন, সোমবার, ১৫ মার্চ ২০২১ ২০৬ বার পড়া হয়েছে
ভয়েস একাত্তর অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

ভয়েস ডিজিটাল ডেস্ক

হিজাব নিয়ে বিতর্কিত মন্তব্য পাকিস্তানে নিযুক্ত চীনা কর্মকর্তার, সমালোচনার ঝড়

উইঘুর মুসলিম নারীকে নিয়ে বিতর্কিত মন্তব্য পাকিস্তানে ব্যাপক সমালোচনার জন্ম দিলেন দেশটিতে নিযুক্ত চীনের সংস্কৃতি বিষয়ক কাউন্সিলর ঝ্যাং হেকিং।

জানা গেছে, ঝ্যাং হেকিং রবিবার তার টুইটার অ্যাকাউন্টে একজন উইঘুর মুসলিম নারীর বেলি ড্যান্সের ভিডিও পোস্ট করেন। ক্যাপশনে লেখেন, “হিজাব খুলে ফেল, তোমার চোখ আমাকে দেখতে দাও। ” যদিও উইঘুর ওই নারীর মাথায় প্রথাগত হিজাব ছিল না।

টুইটার ব্যবহারকারীদের দাবি, মাথায় হিজাব না থাকা সত্ত্বেও এ ধরনের মন্তব্য করে অবজ্ঞা করেছেন।

বিষয়টি নিয়ে পাকিস্তানে ব্যাপক সমালোচনার সৃষ্টি হয়। সমালোচনার জেরে ওই টুইটটি মুছে ফেলেন চীনা ওই কর্মকর্তা।

উল্লেখ্য, জিনজিয়াংয়ের উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলে উইঘুর মুসলিমদের ওপর অত্যাচার-নির্যাতন ও গণহত্যার অভিযোগ নিয়ে বিশ্বজুড়েই চীনের বিরুদ্ধে ব্যাপক সমালোচনা চলছে।

এমতাবস্থায় ওই চীনা কর্মকর্তার এই টুইটকে ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত বলে মনে করছেন অনেকে পাকিস্তানি নাগরিক। বিষয়ে ওই চীনা কর্মকর্তাকে ক্ষমা চাওয়ার দাবি জানিয়েছেন তারা।

মোহাম্মদ আনাস নামে এক টুইটার ব্যবহারকারী লিখেছেন, “একজন মুসলিম ও পাকিস্তানি হিসেবে আমি এই ধরনের শব্দ ব্যবহারকে অপরাধ বরে মনে করি। কেননা, হিজাব আমাদের কাছে পবিত্র একটি বস্তু।

আরেকজন ব্যবহারকারী বলেন, “এটি অদ্ভূত বক্তব্য (পোস্ট)। তবে চীনারা এ ধরনের ইসলাম বিদ্বেষী বক্তব্য দিলে পাকিস্তান-চীন সম্পর্ক ভালভাবে শেষ হবে না। ” সূত্র: দ্য প্রিন্ট

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published.

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপলোডকারীর তথ্য
ট্যাগস :

হিজাব নিয়ে বিতর্কিত মন্তব্য : পাকিস্তানে নিযুক্ত চীনা কর্মকর্তার সমালোচনার ঝড়

আপডেট সময় : ১০:২৩:১৪ অপরাহ্ন, সোমবার, ১৫ মার্চ ২০২১

ভয়েস ডিজিটাল ডেস্ক

হিজাব নিয়ে বিতর্কিত মন্তব্য পাকিস্তানে নিযুক্ত চীনা কর্মকর্তার, সমালোচনার ঝড়

উইঘুর মুসলিম নারীকে নিয়ে বিতর্কিত মন্তব্য পাকিস্তানে ব্যাপক সমালোচনার জন্ম দিলেন দেশটিতে নিযুক্ত চীনের সংস্কৃতি বিষয়ক কাউন্সিলর ঝ্যাং হেকিং।

জানা গেছে, ঝ্যাং হেকিং রবিবার তার টুইটার অ্যাকাউন্টে একজন উইঘুর মুসলিম নারীর বেলি ড্যান্সের ভিডিও পোস্ট করেন। ক্যাপশনে লেখেন, “হিজাব খুলে ফেল, তোমার চোখ আমাকে দেখতে দাও। ” যদিও উইঘুর ওই নারীর মাথায় প্রথাগত হিজাব ছিল না।

টুইটার ব্যবহারকারীদের দাবি, মাথায় হিজাব না থাকা সত্ত্বেও এ ধরনের মন্তব্য করে অবজ্ঞা করেছেন।

বিষয়টি নিয়ে পাকিস্তানে ব্যাপক সমালোচনার সৃষ্টি হয়। সমালোচনার জেরে ওই টুইটটি মুছে ফেলেন চীনা ওই কর্মকর্তা।

উল্লেখ্য, জিনজিয়াংয়ের উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলে উইঘুর মুসলিমদের ওপর অত্যাচার-নির্যাতন ও গণহত্যার অভিযোগ নিয়ে বিশ্বজুড়েই চীনের বিরুদ্ধে ব্যাপক সমালোচনা চলছে।

এমতাবস্থায় ওই চীনা কর্মকর্তার এই টুইটকে ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত বলে মনে করছেন অনেকে পাকিস্তানি নাগরিক। বিষয়ে ওই চীনা কর্মকর্তাকে ক্ষমা চাওয়ার দাবি জানিয়েছেন তারা।

মোহাম্মদ আনাস নামে এক টুইটার ব্যবহারকারী লিখেছেন, “একজন মুসলিম ও পাকিস্তানি হিসেবে আমি এই ধরনের শব্দ ব্যবহারকে অপরাধ বরে মনে করি। কেননা, হিজাব আমাদের কাছে পবিত্র একটি বস্তু।

আরেকজন ব্যবহারকারী বলেন, “এটি অদ্ভূত বক্তব্য (পোস্ট)। তবে চীনারা এ ধরনের ইসলাম বিদ্বেষী বক্তব্য দিলে পাকিস্তান-চীন সম্পর্ক ভালভাবে শেষ হবে না। ” সূত্র: দ্য প্রিন্ট