ঢাকা ০৯:৫১ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ২৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১২ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

শপিংমলে কেনাকাটায় যেতে চাই ‘মুভমেন্ট পাস’

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০১:২৫:৪২ অপরাহ্ন, শনিবার, ২৪ এপ্রিল ২০২১ ১৩৩ বার পড়া হয়েছে
ভয়েস একাত্তর অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকা

করোনার ঊর্ধমুখি সংক্রমণের লাগাম টানতে সরকারী তরফে যতটা প্রয়োজন ব্যবস্থার কোন ঘাটতি রাখতে চাইছে না। সামনে ঈদ। ব্যবসায়ীদের বিনিয়োগ, মানুষের জীবন-জীবীকার পাশাপাশি সাধারণের ঈদের কেনাকাটা সুযোগ দিতেই রবিবার থেকে দোকানপাট, শপিংমল খুলে দেওয়া হচ্ছে।

যদিও বাংলাদেশে চলমান লকডাউ শেষ হচ্ছে রবিবার। আপনি ঈদের কেনাকাটা করতে যাবেন? কোন অসুবিধা নেই। তবে সঙ্গে থাকা চাই ‘মুভমেন্ট পাস’। এমন তথ্য জানিয়ে দিলো পুলিশ সদরদপ্তর।

জরুরী সেবার সঙ্গে যারা জদিত তাদের বেলায় মুভমেন্ট পাস প্রয়োজন হবে না। তাদের ক্ষেত্রে প্রতিষ্ঠানের পরিচয়পত্রই মুভমেন্ট পাস হিসেবে গণ্য হবে। সকাল ১০ টা থেকে বিকেল ৫ টা পর্যন্ত দোকানপাট ও শপিংমল খোলা থাকলেও স্বাস্থ্যবিধি নিশ্চিত এবং অবশ্যই ‘নো মাস্ক নো সার্ভিস’ বিধিনিষেধ মানতে হবে।

১৪ এপ্রিল থেকে দইি ধাপে ২৮ এপ্রিল পর্যন্ত লকডাউন কালীন বাজার-মার্কেট, হোটেল-রেস্তোরাঁসহ বিভিন্ন ক্ষেত্রে বিধিনিষেধ আরোপ করা হয়। তবে উৎপাদনমুখী শিল্প কারখানায় স্বাস্থ্যবিধি মেনে কাজ চালানোর অনুমতি দেয় সরকার।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published.

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপলোডকারীর তথ্য
ট্যাগস :

শপিংমলে কেনাকাটায় যেতে চাই ‘মুভমেন্ট পাস’

আপডেট সময় : ০১:২৫:৪২ অপরাহ্ন, শনিবার, ২৪ এপ্রিল ২০২১

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকা

করোনার ঊর্ধমুখি সংক্রমণের লাগাম টানতে সরকারী তরফে যতটা প্রয়োজন ব্যবস্থার কোন ঘাটতি রাখতে চাইছে না। সামনে ঈদ। ব্যবসায়ীদের বিনিয়োগ, মানুষের জীবন-জীবীকার পাশাপাশি সাধারণের ঈদের কেনাকাটা সুযোগ দিতেই রবিবার থেকে দোকানপাট, শপিংমল খুলে দেওয়া হচ্ছে।

যদিও বাংলাদেশে চলমান লকডাউ শেষ হচ্ছে রবিবার। আপনি ঈদের কেনাকাটা করতে যাবেন? কোন অসুবিধা নেই। তবে সঙ্গে থাকা চাই ‘মুভমেন্ট পাস’। এমন তথ্য জানিয়ে দিলো পুলিশ সদরদপ্তর।

জরুরী সেবার সঙ্গে যারা জদিত তাদের বেলায় মুভমেন্ট পাস প্রয়োজন হবে না। তাদের ক্ষেত্রে প্রতিষ্ঠানের পরিচয়পত্রই মুভমেন্ট পাস হিসেবে গণ্য হবে। সকাল ১০ টা থেকে বিকেল ৫ টা পর্যন্ত দোকানপাট ও শপিংমল খোলা থাকলেও স্বাস্থ্যবিধি নিশ্চিত এবং অবশ্যই ‘নো মাস্ক নো সার্ভিস’ বিধিনিষেধ মানতে হবে।

১৪ এপ্রিল থেকে দইি ধাপে ২৮ এপ্রিল পর্যন্ত লকডাউন কালীন বাজার-মার্কেট, হোটেল-রেস্তোরাঁসহ বিভিন্ন ক্ষেত্রে বিধিনিষেধ আরোপ করা হয়। তবে উৎপাদনমুখী শিল্প কারখানায় স্বাস্থ্যবিধি মেনে কাজ চালানোর অনুমতি দেয় সরকার।