শুক্রবার, ২৮ জানুয়ারী ২০২২, ০৫:০৪ অপরাহ্ন

মৃত শিক্ষক ভোট কেন্দ্রে হাজির! প্রশ্ন কত বার মারা যাবো?

ভয়েস ডিজিটাল ডেস্ক
  • প্রকাশ: সোমবার, ২৯ নভেম্বর, ২০২১
  • ৩৯ জন দেখেছেন

অর্ধশত বছর পার করা দিপেন্দ্র নাথ সাহা একজন স্কুল শিক্ষক। জীবনে একাধিকবার ভোটগ্রহণের

দায়িত্ব পালন করেছেন। ভোটও দিয়েছেন। অথচ ২০১৫ সালের ভোটার তালিকায় তিনি মৃত।

ভাবছিলেন এই তালিকা ঠিক হয়ে যাবে। কিন্তু সুস্থ সবল এক শিক্ষক ২০২১ সালেও রয়ে গেলেন

মৃতের তালিকায়। ভোট বাজারে সম্ভবত দুনিয়াজোড়া এমন কিছু কাণ্ড ঘটে থাকে! যা ঘটে গেলো

এক স্কুল শিক্ষক দিপেন্দ্র বাবুর বেলায়। তাই অক্ষেপ করে বললেন-তিনি ‘কতবার মারা গেলে

ভোট দিতে পারবেন?’ ঘটনা বাংলাদেশের নাটোর জেলার লালপুরে। লালপুর শ্রী সুন্দরী পাইলট

উচ্চবিদ্যালয়ের জ্যেষ্ঠ সহকারী শিক্ষক দিপেন্দ্র বাবু লালপুর ইউনিয়নের জোতদৈবকী গ্রামের

বাসিন্দা। রবিবার এখানে ইউনিয়ন পরিষদ (ইইপি) নির্বাচন হয়ে গেলো। আর দশজনের মতো

ভোট দিতে কেন্দ্রে যান তিনি। দীর্ঘ লাইনে দাঁড়িয়ে কেন্দ্রের ভেতরে গেলেন এবং ভোটার তালিকা

দেখলেন তখন তার ভিমরি খাওয়ার অবস্থা। এবারেও ২০১৫ সালের ঘটনা? অর্থাৎ তিনি মৃত

দিপেন্দ্র বাবুর আক্ষেপ তিনি কত বার মারা গেলে ভোট দিতে পারবেন? তিনি নির্বাচন কমিশনের

ভোটার তালিকা অনুসারে দ্বিতীয় বারের মতো মারা গিয়েছেন এই স্কুল শিক্ষক। তার ভাষায়

একজন নাগরিক হিসেবে ভোট দিয়েছেন এবং শিক্ষক হিসেবে ভোট গ্রহণের দায়িত্বও পালন

করেছেন। অথচ নির্বাচন কমিশনের কাগজপত্রে তিনি আজ মৃত! ২০১৫ লালপুর উপজেলা

নির্বাচন কার্যালয়ে জাতীয় পরিচয়পত্র ও ভোটার তালিকা সংশোধনের লিখিত আবেদন করেন।

২০১৮ সালে জাতীয় পরিচয়পত্র সংশোধন করে মৃত থেকে জীবিত হয়েছিলেন। নির্বাচন কার্যালয়

থেকে আশ্বস্ত করা বলা হয়েছিলো ভোটার তালিকা সংশোধন হয়ে যাবে এবং তিনি ভোটও দিতে

পারবেন। কিন্তু এবারেও দিপেন্দ্র বাবুর রয়ে গেলেন মৃতের তালিকায়ই!

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
© All rights reserved © 2017 voiceekattor
কারিগরি সহযোগিতায়: সোহাগ রানা
11223