সোমবার, ১৫ অগাস্ট ২০২২, ০১:৪০ পূর্বাহ্ন

মাস্ক পরা বাধ্যতামূলক করতে ‘লাঠিপেটা’ আইন

ভয়েস রিপোর্ট
  • প্রকাশ: বৃহস্পতিবার, ১৩ মে, ২০২১
  • ৭৩

করোনার প্রাদুর্ভাবরোধে লকডাউনসহ নানা রকমের নির্দেশনা জারি করেও কোন লাভ হয়নি। সাধারণ মানুষ এসব বিধিনিষেধ তেমন একটা তোয়াক্কা নেয়নি। একারণে করোনা সংক্রমণ রুখা কঠিন হয়ে পড়েছে। এবারে মাস্কপরা বাধ্যতামূলক করতে ‘লাঠিপেটা’ নির্বাহী ক্ষমতা দেওয়া হবে পুলিশকে।

বাংলাদেশে বর্তমান আইনে মাস্ক পরতে বাধ্য করার বিধান নেই। একারণে কঠোর অবস্থানে যেতে পারছে না পুলিশ। স্বাস্থ্যবিধি ও মাস্ক পরা বাধ্যতামূলক করতে পুলিশকে নির্বাহী ক্ষমতা দিয়ে আইন সংশোধনের উদ্যোগ নিয়েছে সরকার।

বৃটিশ আইনে লাঠিপেটা বা বেত্রাঘাতের নিয়ম থাকলেও তা বাতিল করা। বর্তমানে বিভিন্ন বিষয়ে গুরুত্বপূর্ণ আইনি শাস্তির বড় বিষয়গুলো রয়েছে পেনাল কোডে। কিন্তু পেনাল কোডে বেত্রাঘাত বা লাঠিপেটার বিধান নেই। হুইপিং (চাবুক) অ্যাক্ট, ১৯০৯ নামের একটি আইন চালু রয়েছে। মাস্ক পরার ক্ষেত্রে সেটা ব্যবহার করা যায় কিনা-সেটাও মাথা রেখে এগুনো হচ্ছে।

এটি হলে পুলিশ সাধারণের ওপর প্রয়োজনে লাঠি চালাতে পারবে। সরকারকারের শীর্ষ আধিকারীকরা জােিয়ছেন, করোনার সংক্রমণ রোধে দীর্ঘমেয়াদী উদ্যোগে জোর দেওয়া হয়েছে।

এ প্রসঙ্গে জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন বলেন, যারা মাস্ক পরছে তারা সেভ থাকছে। অবস্থা দেখে মনে হচ্ছে না যে করোনা সহজে চলে যাবে। আমরা মাস্ক পরা শতভাগ নিশ্চিত করতে চাই। এজন্য আইন সংশোধন করে জরিমানাসহ আইনে আরও কঠোর ব্যবস্থার বিষয়টি ভাবা হচ্ছে।

এর আগে কয়েক দফা লকডাউন ঘোষণার পর কার্যত তা সফলতা পায়নি। ঈদকে সামনে রেখে মানুষের বেপারোয়া চলাচলে তৃতীয় ঢেউ ছড়িয়ে পড়ার আশঙ্কা রয়েছে সরকার। ঈদের পর ফের কঠোর ডাউনের পথে হাটছে সরকার।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published.

More News Of This Category
© All rights reserved © 2017 voiceekattor
কারিগরি সহযোগিতায়: সোহাগ রানা
11223