ঢাকা ০৭:৫৫ অপরাহ্ন, শনিবার, ২০ এপ্রিল ২০২৪, ৭ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

বেনাপোল এক্সপ্রেস ট্রেনে আগুন, দগ্ধ হয়ে ৪ যাত্রীর মৃত্যু

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ১১:০৪:১২ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ৬ জানুয়ারী ২০২৪ ১০০ বার পড়া হয়েছে

বেনাপোল এক্সপ্রেস ট্রেনে আগুন

ভয়েস একাত্তর অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

 

নিজস্ব প্রতিনিধি, ঢাকা

ট্রেনে ফের নাশকতার আগুন বাংলাদেশে। আগুনে দগ্ধ হয়ে প্রাণ গেল ৪ যাত্রী। বেনাপোল থেকে ঢাকায় আসা ট্রেন বেনাপোল এক্সপ্রেসটিতে রাত

সোয়া ৯টা নাগাদ আগুন দেয় দুবৃর্ত্তরা। তাতে দগ্ধ হয়ে প্রাণ গেল ৪ জনের। মৃতের সংখ্যা বাড়তে পারে। দগ্ধ হয়েছে বেশ কয়েকজন। বিধ্বংসী

আগুনে ট্রেনের ফায়ার কারসহ চারটি বগি পুড়ে গেছে।

৭ই জানুয়ারি বাংলাদেশের দ্বাদশ নির্বাচন বর্জনে বিরোধী রাজনৈতিক দল শুক্রবার ৪৮ ঘন্টার হরতালের ডাক দেয়। আর সেদিন রাতেই ট্রেনে

বিধ্বংসী আগুনের ঘটনা।

ফায়ার সার্ভিস জানিয়েছে, ঢাকার কমলাপুর স্টেশনের অদূরে গোপীবাগ এলাকায় ট্রেনটিতে আগুন লাগার খবর পেয়ে সাতটি ইঞ্জিন ঘটনাস্থলে

পৌঁছে আগুন নিয়ন্ত্রণের কাজ শুরু করে। রাত ১১ নাগাদ আগুন নিয়ন্ত্রণে আসে।

এছাড়া ডেমরা নামক স্থানে একটি বাস পুড়িয়ে দেয় দুর্বৃত্তরা। ঢাকার প্রাণ কেন্দ্র সেগুন বাগিচায় ককটেল বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটেছে।

আগুন লাগার খবর পেয়ে বিজিবি, র‌্যাব ও পুলিশ ঘটনার স্থলে পৌছে নিরাপত্তা আগুন নেভানোর কাজে ফায়ার সার্ভিসকে সহাতা করে। আগুন

লাগার কারণ অনুসন্ধ্যানে নেমেছেন করছে গোয়েন্দারা।

এর আগে গত ১৯ ডিসেম্বর ঢাকার তেজগাঁও স্টেশনে মোহনগঞ্জ এক্সপ্রেসে আগুন দেয় দুর্বৃত্তরা। তাতে মা ও শিশুসহ ৪জন প্রাণ হারায়। আগুনে ট্রেনটির ৩টি বগি পুড়ে যায়।

বেনাপোল এক্সপ্রেসে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় হতাহতের ঘটনায় গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করেছেন রেলপথ মন্ত্রকের মন্ত্রী মো. নূরুল ইসলাম সুজন।
আগুনের ঘটনায় সাত সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published.

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপলোডকারীর তথ্য

বেনাপোল এক্সপ্রেস ট্রেনে আগুন, দগ্ধ হয়ে ৪ যাত্রীর মৃত্যু

আপডেট সময় : ১১:০৪:১২ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ৬ জানুয়ারী ২০২৪

 

নিজস্ব প্রতিনিধি, ঢাকা

ট্রেনে ফের নাশকতার আগুন বাংলাদেশে। আগুনে দগ্ধ হয়ে প্রাণ গেল ৪ যাত্রী। বেনাপোল থেকে ঢাকায় আসা ট্রেন বেনাপোল এক্সপ্রেসটিতে রাত

সোয়া ৯টা নাগাদ আগুন দেয় দুবৃর্ত্তরা। তাতে দগ্ধ হয়ে প্রাণ গেল ৪ জনের। মৃতের সংখ্যা বাড়তে পারে। দগ্ধ হয়েছে বেশ কয়েকজন। বিধ্বংসী

আগুনে ট্রেনের ফায়ার কারসহ চারটি বগি পুড়ে গেছে।

৭ই জানুয়ারি বাংলাদেশের দ্বাদশ নির্বাচন বর্জনে বিরোধী রাজনৈতিক দল শুক্রবার ৪৮ ঘন্টার হরতালের ডাক দেয়। আর সেদিন রাতেই ট্রেনে

বিধ্বংসী আগুনের ঘটনা।

ফায়ার সার্ভিস জানিয়েছে, ঢাকার কমলাপুর স্টেশনের অদূরে গোপীবাগ এলাকায় ট্রেনটিতে আগুন লাগার খবর পেয়ে সাতটি ইঞ্জিন ঘটনাস্থলে

পৌঁছে আগুন নিয়ন্ত্রণের কাজ শুরু করে। রাত ১১ নাগাদ আগুন নিয়ন্ত্রণে আসে।

এছাড়া ডেমরা নামক স্থানে একটি বাস পুড়িয়ে দেয় দুর্বৃত্তরা। ঢাকার প্রাণ কেন্দ্র সেগুন বাগিচায় ককটেল বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটেছে।

আগুন লাগার খবর পেয়ে বিজিবি, র‌্যাব ও পুলিশ ঘটনার স্থলে পৌছে নিরাপত্তা আগুন নেভানোর কাজে ফায়ার সার্ভিসকে সহাতা করে। আগুন

লাগার কারণ অনুসন্ধ্যানে নেমেছেন করছে গোয়েন্দারা।

এর আগে গত ১৯ ডিসেম্বর ঢাকার তেজগাঁও স্টেশনে মোহনগঞ্জ এক্সপ্রেসে আগুন দেয় দুর্বৃত্তরা। তাতে মা ও শিশুসহ ৪জন প্রাণ হারায়। আগুনে ট্রেনটির ৩টি বগি পুড়ে যায়।

বেনাপোল এক্সপ্রেসে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় হতাহতের ঘটনায় গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করেছেন রেলপথ মন্ত্রকের মন্ত্রী মো. নূরুল ইসলাম সুজন।
আগুনের ঘটনায় সাত সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে।