বুধবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০১:৪৬ পূর্বাহ্ন

বীরাঙ্গনা শিলা গুহ’র কথায় কাঁদলেন ‘শেখ হাসিনা’

ভয়েস রিপোর্ট
  • Update Time : রবিবার, ২০ জুন, ২০২১
  • ৪৭ Time View
পথের ভিখারি থেকে আজ হলাম লাখপতি: বীরাঙ্গনা শিলা গুহ

শেখ হাসিনা দেওয়া ঘরের বারান্দায় বীরঙ্গনা শিলা গুহ

‘যারা এই অনুষ্ঠানটি টেলিভিশনে দেখেছেন সেই মুহূর্তেদে তাদের   অনেকেই চোখের জল ধরে রাখতে পারেননি’ ‘শেখ হাসিনাকে যেন  বিপদমুক্ত থাকেন সেজন্য  প্রতিদিন দুই টাকার মোমবাতি জ্বালিয়ে প্রার্থনা করে আসছিলেন’

মৌলভীবাজার জেলার শ্রীমঙ্গল উপজেলার মাইজদীঘি গ্রামে বীরাঙ্গনা শিলা গুহ পেলেন দুই শতক জমিসহ সেমিপাকা ঘর। জমির দলিল এবং ঘর বিতরণকালে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে কথা বলতে গিয়ে কান্নায় ভেঙে পড়েন বীরাঙ্গনা শিলা গুহ। তার কথায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাও অশ্রু ধরে রাখতে পারেননি। বীরাঙ্গনা শীলা গুহ ও প্রধানমন্ত্রীর কান্না গোটা অনুষ্ঠানকে আবেগময় করে তোলে।

বীরাঙ্গনা শিলা গুহ পথে পথে কাটিয়েছেন বহু বছর। আজ শেখ হাসিনার হাত ধরে পেলেন মাথা গোঁজার ঠাই। জমির দলিল হাতে পেয়ে ঈশ্বর বন্দনা করতে গিয়ে চোখে নেমে আসে জলের ধারা। দীর্ঘ আসহায় জীবন কাটানোর স্বপ্নের ঠিকায় শিলা গুহ জীবনের বাকী সময়টা কাটিয়ে যাবেন ভাবনাহীন।

আগেই ঘোষণা দিয়েছিলেন শেখ হাসিনা। বলেছিলেন, শেখ মুজিবের বাংলায় তাঁর জন্মশতবার্ষিকীতে একজন মানুষও ঠিকানাহীন থাকবে না। তাই করলেন শেখ হাসিনা।

ঠিকানাবিহীন অসহায় মানুষকে দুই শতক জমিসহ দৃষ্টিনন্দন সেমিপাকা ঘর উপহার দিয়ে আশ্রয়ে ঠিকানা করে দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

বাংলার উন্নয়নের ‘মা’ হিসেবেই বেচে থাকবেন শেখ হাসিনা। যেমন স্বাধীন দেশ এনে দিয়ে চির অম্লান হয়ে আছেন ‘বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান’।

এদিন আশ্রয়ণ-২ প্রকল্পের আওতায় দ্বিতীয় পর্যায়ে আরও ৫৩ হাজার ৩৪০ পরিবারকে ঘর বুঝিয়ে দেওয়া হলো।
রবিবার সকালে গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে যুক্ত হন প্রধানমন্ত্রী। সারাদেশে ৪৫৯টি উপজেলায় ভূমিহীন ও গৃহহীনদের মাঝে জমির দলিল ও ঘরের চাবি তুলে দেয়া হয়।

এ সময় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে মতবিনিময়কালে বীরাঙ্গনা শিলা গুহ তার অনুভূতি ব্যক্ত করতে গিয়ে বলেন, নিজেকে ধরে রাখতে পারেননি। কান্নায় ভেঙ্গে পড়ে বলেন, ‘পথের ভিখারি থেকে আজ হলাম লাখপতি’।

ঘর পাওয়া ভূমিহীন শীলা গুহ বলেন, যুদ্ধের সময়ও তিনি বুঝেননি বঙ্গবন্ধু কন্যা শেষ বয়সে শিলা গুহদের দেখে রাখবেন। তিনি বলেন ‘স্বর্গ থেকে বঙ্গবন্ধু ও বঙ্গমাতা আজ এই খুশির মুহূর্তটি দেখছেন এবং তাদের আত্মা শান্তিতে ভরে উঠছে’।

তিনি আরও বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে যেন করোনাভাইরাস কিংবা কোনও বিপদ আক্রান্ত না করতে পারে এজন্য তিনি প্রতিদিন দুই টাকার মোমবাতি জ্বালিয়ে প্রার্থনা করে আসছেন।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
© All rights reserved © 2017 voiceekattor
কারিগরি সহযোগিতায়: সোহাগ রানা
11223