ঢাকা ০৭:৩২ অপরাহ্ন, রবিবার, ২৩ জুন ২০২৪, ৯ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

বাবা-মায়ের বিচ্ছেদ নিয়ে যা বললেন জেনিফার গেটস

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৬:১৫:৪৯ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ৪ মে ২০২১ ১৪২ বার পড়া হয়েছে
ভয়েস একাত্তর অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

বাবা-মায়ের বিচ্ছেদ নিয়ে যা বললেন জেনিফার গেটস

ভয়েস ডিজিটাল ডেস্ক

কর্মের জন্য গোটা বিশ্বের মানুষের কাছেই ছিলো তাদের পরিচিতি। তাছাড়া বিশ্বের সবচেয়ে আলোচিত ও ধনী দম্পতি বিল ও মেলিন্ডা গেটস বিচ্ছেদের ঘোষণা দিয়েছেন। ৩ মে টুইটারে যৌথ বিবৃতিতে তারা এ ঘোষণা দেন।

বিল ও মেলিন্ডা জানিয়েছেন, তারা চেষ্টা করেছেন একসঙ্গে থাকার। কিন্তু তাদের পক্ষে আর দম্পতি হয়ে একসঙ্গে থাকা সম্ভব নয়। বিল ও মেলিন্ডার সংসারে তিনটি সন্তান রয়েছে।

বড় সন্তানের নাম জেনিফার গেটস। বাবা-মায়ের বিচ্ছেদ নিয়ে ইনস্টাগ্রামে জেনিফার লিখেছেন, এ ঘোষণায় পুরো পরিবার কঠিন সময় পার করছে। এ পরিস্থিতিতে কীভাবে নিজের আবেগ সামলানো যায় এবং সেই সঙ্গে পরিবারের সদস্যদের সামলে রাখা যায়, তা নিয়ে এখনো আমি কাজ করছি। এতে আমাকে সুযোগ ও সমর্থন দেওয়ায় আমি কৃতজ্ঞ।

২৫ বছর বয়সী জেনিফার আরও লিখেছেন, এই বিচ্ছেদের বিষয়ে আমি ব্যক্তিগত পর্যায়ে কোনো মন্তব্য করতে চাই না। কিন্তু এটি মনে রাখবেন, আপনাদের সহানুভূতিশীল বক্তব্য ও সমর্থন আমার কাছে অনেক বড় বিষয়।

ব্যক্তিগত গোপনীয়তা রক্ষার ক্ষেত্রে আমাদের চাওয়া বুঝতে পারায় সবার প্রতি ধন্যবাদ। আমরা এখন আমাদের জীবনের পরবর্তী পর্যায় নিয়ে কাজ করব।

 

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published.

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপলোডকারীর তথ্য
ট্যাগস :

বাবা-মায়ের বিচ্ছেদ নিয়ে যা বললেন জেনিফার গেটস

আপডেট সময় : ০৬:১৫:৪৯ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ৪ মে ২০২১

বাবা-মায়ের বিচ্ছেদ নিয়ে যা বললেন জেনিফার গেটস

ভয়েস ডিজিটাল ডেস্ক

কর্মের জন্য গোটা বিশ্বের মানুষের কাছেই ছিলো তাদের পরিচিতি। তাছাড়া বিশ্বের সবচেয়ে আলোচিত ও ধনী দম্পতি বিল ও মেলিন্ডা গেটস বিচ্ছেদের ঘোষণা দিয়েছেন। ৩ মে টুইটারে যৌথ বিবৃতিতে তারা এ ঘোষণা দেন।

বিল ও মেলিন্ডা জানিয়েছেন, তারা চেষ্টা করেছেন একসঙ্গে থাকার। কিন্তু তাদের পক্ষে আর দম্পতি হয়ে একসঙ্গে থাকা সম্ভব নয়। বিল ও মেলিন্ডার সংসারে তিনটি সন্তান রয়েছে।

বড় সন্তানের নাম জেনিফার গেটস। বাবা-মায়ের বিচ্ছেদ নিয়ে ইনস্টাগ্রামে জেনিফার লিখেছেন, এ ঘোষণায় পুরো পরিবার কঠিন সময় পার করছে। এ পরিস্থিতিতে কীভাবে নিজের আবেগ সামলানো যায় এবং সেই সঙ্গে পরিবারের সদস্যদের সামলে রাখা যায়, তা নিয়ে এখনো আমি কাজ করছি। এতে আমাকে সুযোগ ও সমর্থন দেওয়ায় আমি কৃতজ্ঞ।

২৫ বছর বয়সী জেনিফার আরও লিখেছেন, এই বিচ্ছেদের বিষয়ে আমি ব্যক্তিগত পর্যায়ে কোনো মন্তব্য করতে চাই না। কিন্তু এটি মনে রাখবেন, আপনাদের সহানুভূতিশীল বক্তব্য ও সমর্থন আমার কাছে অনেক বড় বিষয়।

ব্যক্তিগত গোপনীয়তা রক্ষার ক্ষেত্রে আমাদের চাওয়া বুঝতে পারায় সবার প্রতি ধন্যবাদ। আমরা এখন আমাদের জীবনের পরবর্তী পর্যায় নিয়ে কাজ করব।