ঢাকা ১০:৩৭ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২১ মে ২০২৪, ৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

বাংলাদেশের স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তীতে যাত্রী রেল যাবে শিলিগুড়ি আলোচনায় বসছে বাংলাদেশ-ভারতের প্রতিনিধি দল

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৪:০৩:০০ অপরাহ্ন, শনিবার, ২০ ফেব্রুয়ারী ২০২১ ২৩৮ বার পড়া হয়েছে
ভয়েস একাত্তর অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

আমিনুল হক, ঢাকা

বাংলাদেশের স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তীতে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি দু’দিনে সফরে ২৬ মার্চ ঢাকা আসছেন। এদিন বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও নরেন্দ্র মোদি ঢাকা শিলিগুড়ি যাত্রীবাহী ট্রেনের শুভ উদ্বোধনের কথা রয়েছে। এ নিয়ে বিশদ আলোচনা করতে বৈঠকে বসবেন দু’দের প্রতিনিধি দল।

বৈঠক হবার কথা ছিল চলতি মাসের প্রথম সপ্তাহে। তা এক দফা পিছিয়ে ২২-২৪ ফৈব্রুয়ারি করা হয়েছে। বাংলাদেশ রেলওয়ের উচ্চপদস্থ আধিকারীকদের একটি প্রতিনিধি দল শনিবার ভারতের উদ্দেশ্যে ঢাকা ছেড়েছেন। রেলভবন সূত্রে জানা গেছে, ঈশ্বরদী বিভাগীয় কর্মকর্তার নেতৃত্বে প্রতিনিধি দলে রেলপথ মন্ত্রকসহ বিভিন্ন পর্যায়ের অধিকারীক রয়েছেন। বাংলাদেশের স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী ঢাকা-শিলিগুড়ি যে ট্রেনটি শুভ যাত্রা হতে যাচ্ছে, তা নিয়ে বিশদ আলোচনা ওঠে আসবে বৈঠকে। করতে ভারতে পথে রয়েছেন, সাত সদস্যের বাংলাদেশ রেলওয়ের উচ্চপদস্থ প্রতিনিধি দল। পশ্চিমবঙ্গের শিলিগুড়িতে দু’দিনের বৈঠকে বসবেন রবিবার।


স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী পালন উপলক্ষে আনন্দে ভাসছে বাংলাদেশের সাধারণ মানুষ। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবাষির্কী পালনের পাশাপাশি সুবর্ণজয়ন্তী এবং বাংলাদেশ-ভারতের কূটনৈতিক সম্পর্কের ৫০ বছর পূর্তি পালন করা হবে। পড়শি দেশের মধ্যে সবচেয়ে কাছের বন্ধু বাংলাদেশের এই জমকালো অনুষ্ঠানে অতিথি হয়ে দু’দিনের ঢাকা সফরে ২৬ মার্চ ঢাকা সফরে আসছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। তার আগের ৪ মার্চ ঢাকায় পা রাখার কথা রয়েছে ভারতের বিদেশমন্ত্রী ড. এস জয়শঙ্করের। ২৬ মার্চ বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এবং ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র বঙ্গবন্ধু-বাপু জাদুঘরের উদ্বোধনের কথা রয়েছে। এদিন নরেন্দ্র মোদি বঙ্গবন্ধু সমাধিতে শ্রদ্ধা নিবেদন করতে টুঙ্গিপাড়া যাবেন। একই ঢাকা থেকে শিলিগুড়ির পথে যাত্রীবাহী ট্রেনের শুভ যাত্রার সূচনা করবেন। ২৭ মার্চ ঢাকায় দুই প্রধানমন্ত্রীর বৈঠকের কথা রয়েছে। ঢাকা-শিলিগুড়ি ট্রেন যাত্রার বিষয়টি নিয়ে বিশদে আলোচনা করতে ২২-২৪ ফ্রেব্রুয়ারি দুদিনের সফরে শিলিগুড়ি যাচ্ছেন বাংলাদেশ রেলপথ মন্ত্রকের একটি প্রতিনিধি দল।

২০ ফেব্রুয়ারি রওয়ানা দিয়ে ২১ ফেব্রুয়ারি শিলিগুড়ি পৌছাবেন এবং ২২ ফেব্রুয়ারি দু’দেশের রেলপথ প্রতিনিধিদের বৈঠক শুরু হবে। বাংলাদেশের রেলভবন সূত্রে জানা গিয়েছে, ঢাকা-শিলিগুড়ি চলাচলকারী যাত্রীবাহী ট্রেনের কাস্টমস, ইমিগ্রেশন, সপ্তাহে ক’দিন চলাচল করবে ইত্যাদি বিষয়গুলো পাশাপাশি অপর রেলপথগুলোর নিত্যকর্মসূচি নিয়েও বিশদ আলোচনা করবে উভয় দেশ।


এর আগে মুজিববর্ষ ও স্বাধীনতা দিবসের রেশ ধরে গত ১৭ ডিসেম্বর ৫৫ বছর পর বাংলাদেশের চিলাহাটি-হলদিবাড়ি রেলপথটির বন্ধ দুয়া খুলেছে। যার পথ বেয়ে আগামী ২৬ মার্চ স্বানতার সুবর্ণজয়ন্তীতে শেখ হাসিনা-নরেন্দ্র মোদির হাত ধরে ঢাকা-শিলিগুড়ি যাত্রীবাহী রেল চলাচল শুরু হতে যাচ্ছে। এ নিয়ে উভয় দেশের মানুষ গভীর আগ্রহ নিয়ে অপেক্ষার প্রহর গুণছেন। চিলাহাটি ও আশপাশ এলাকায় বসবাসকারী একটা বিপুল অংশ মানুষের আত্মীয়স্বজন ভারতে রয়েছে। এখানের ভাষা ও সংস্কৃতি এক। তাদের আশা এবারে যাত্রীবাহী ট্রেন চলাচল শুরু হলে উভয়ের দিকের স্বজনদের যাতায়ত শুরু হবে। দীর্ঘদিন পর একে অপরকে জড়িয়ে ধরে আবেগে ভাসতে পারবে।

চিলাহাটি ও আশপাশ এলাকার মানুষের কতটা আবেগ তা বোঝা গিয়েছে গত ১৭ ডিসেম্বর চিলাহাটি-হলদিবাড়ি পণ্যবাহী ট্রেনের উদ্বোধন কালে। মানুষের ভীড়ের কারণে ট্রেন যেতে কিছুটা সময় লেগেছে। এমন আবেগ চোখে না দেখলে বিশ্বাস করা যায় না। চিলাহাটি তথা ঐ অঞ্চলের মানুষ অপেক্ষার পালা শেষ হতে চলেছে আগামী ২৬ মার্চ বাংলাদেশের সুবর্ণজয়ন্তী অর্থাৎ স্বাধীনতা দিবসে ঢাকা-শিলিগুড়ি যাত্রীবাহী ট্রেন চলাচলের মধ্য দিয়ে।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published.

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপলোডকারীর তথ্য
ট্যাগস :

বাংলাদেশের স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তীতে যাত্রী রেল যাবে শিলিগুড়ি আলোচনায় বসছে বাংলাদেশ-ভারতের প্রতিনিধি দল

আপডেট সময় : ০৪:০৩:০০ অপরাহ্ন, শনিবার, ২০ ফেব্রুয়ারী ২০২১

আমিনুল হক, ঢাকা

বাংলাদেশের স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তীতে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি দু’দিনে সফরে ২৬ মার্চ ঢাকা আসছেন। এদিন বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও নরেন্দ্র মোদি ঢাকা শিলিগুড়ি যাত্রীবাহী ট্রেনের শুভ উদ্বোধনের কথা রয়েছে। এ নিয়ে বিশদ আলোচনা করতে বৈঠকে বসবেন দু’দের প্রতিনিধি দল।

বৈঠক হবার কথা ছিল চলতি মাসের প্রথম সপ্তাহে। তা এক দফা পিছিয়ে ২২-২৪ ফৈব্রুয়ারি করা হয়েছে। বাংলাদেশ রেলওয়ের উচ্চপদস্থ আধিকারীকদের একটি প্রতিনিধি দল শনিবার ভারতের উদ্দেশ্যে ঢাকা ছেড়েছেন। রেলভবন সূত্রে জানা গেছে, ঈশ্বরদী বিভাগীয় কর্মকর্তার নেতৃত্বে প্রতিনিধি দলে রেলপথ মন্ত্রকসহ বিভিন্ন পর্যায়ের অধিকারীক রয়েছেন। বাংলাদেশের স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী ঢাকা-শিলিগুড়ি যে ট্রেনটি শুভ যাত্রা হতে যাচ্ছে, তা নিয়ে বিশদ আলোচনা ওঠে আসবে বৈঠকে। করতে ভারতে পথে রয়েছেন, সাত সদস্যের বাংলাদেশ রেলওয়ের উচ্চপদস্থ প্রতিনিধি দল। পশ্চিমবঙ্গের শিলিগুড়িতে দু’দিনের বৈঠকে বসবেন রবিবার।


স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী পালন উপলক্ষে আনন্দে ভাসছে বাংলাদেশের সাধারণ মানুষ। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবাষির্কী পালনের পাশাপাশি সুবর্ণজয়ন্তী এবং বাংলাদেশ-ভারতের কূটনৈতিক সম্পর্কের ৫০ বছর পূর্তি পালন করা হবে। পড়শি দেশের মধ্যে সবচেয়ে কাছের বন্ধু বাংলাদেশের এই জমকালো অনুষ্ঠানে অতিথি হয়ে দু’দিনের ঢাকা সফরে ২৬ মার্চ ঢাকা সফরে আসছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। তার আগের ৪ মার্চ ঢাকায় পা রাখার কথা রয়েছে ভারতের বিদেশমন্ত্রী ড. এস জয়শঙ্করের। ২৬ মার্চ বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এবং ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র বঙ্গবন্ধু-বাপু জাদুঘরের উদ্বোধনের কথা রয়েছে। এদিন নরেন্দ্র মোদি বঙ্গবন্ধু সমাধিতে শ্রদ্ধা নিবেদন করতে টুঙ্গিপাড়া যাবেন। একই ঢাকা থেকে শিলিগুড়ির পথে যাত্রীবাহী ট্রেনের শুভ যাত্রার সূচনা করবেন। ২৭ মার্চ ঢাকায় দুই প্রধানমন্ত্রীর বৈঠকের কথা রয়েছে। ঢাকা-শিলিগুড়ি ট্রেন যাত্রার বিষয়টি নিয়ে বিশদে আলোচনা করতে ২২-২৪ ফ্রেব্রুয়ারি দুদিনের সফরে শিলিগুড়ি যাচ্ছেন বাংলাদেশ রেলপথ মন্ত্রকের একটি প্রতিনিধি দল।

২০ ফেব্রুয়ারি রওয়ানা দিয়ে ২১ ফেব্রুয়ারি শিলিগুড়ি পৌছাবেন এবং ২২ ফেব্রুয়ারি দু’দেশের রেলপথ প্রতিনিধিদের বৈঠক শুরু হবে। বাংলাদেশের রেলভবন সূত্রে জানা গিয়েছে, ঢাকা-শিলিগুড়ি চলাচলকারী যাত্রীবাহী ট্রেনের কাস্টমস, ইমিগ্রেশন, সপ্তাহে ক’দিন চলাচল করবে ইত্যাদি বিষয়গুলো পাশাপাশি অপর রেলপথগুলোর নিত্যকর্মসূচি নিয়েও বিশদ আলোচনা করবে উভয় দেশ।


এর আগে মুজিববর্ষ ও স্বাধীনতা দিবসের রেশ ধরে গত ১৭ ডিসেম্বর ৫৫ বছর পর বাংলাদেশের চিলাহাটি-হলদিবাড়ি রেলপথটির বন্ধ দুয়া খুলেছে। যার পথ বেয়ে আগামী ২৬ মার্চ স্বানতার সুবর্ণজয়ন্তীতে শেখ হাসিনা-নরেন্দ্র মোদির হাত ধরে ঢাকা-শিলিগুড়ি যাত্রীবাহী রেল চলাচল শুরু হতে যাচ্ছে। এ নিয়ে উভয় দেশের মানুষ গভীর আগ্রহ নিয়ে অপেক্ষার প্রহর গুণছেন। চিলাহাটি ও আশপাশ এলাকায় বসবাসকারী একটা বিপুল অংশ মানুষের আত্মীয়স্বজন ভারতে রয়েছে। এখানের ভাষা ও সংস্কৃতি এক। তাদের আশা এবারে যাত্রীবাহী ট্রেন চলাচল শুরু হলে উভয়ের দিকের স্বজনদের যাতায়ত শুরু হবে। দীর্ঘদিন পর একে অপরকে জড়িয়ে ধরে আবেগে ভাসতে পারবে।

চিলাহাটি ও আশপাশ এলাকার মানুষের কতটা আবেগ তা বোঝা গিয়েছে গত ১৭ ডিসেম্বর চিলাহাটি-হলদিবাড়ি পণ্যবাহী ট্রেনের উদ্বোধন কালে। মানুষের ভীড়ের কারণে ট্রেন যেতে কিছুটা সময় লেগেছে। এমন আবেগ চোখে না দেখলে বিশ্বাস করা যায় না। চিলাহাটি তথা ঐ অঞ্চলের মানুষ অপেক্ষার পালা শেষ হতে চলেছে আগামী ২৬ মার্চ বাংলাদেশের সুবর্ণজয়ন্তী অর্থাৎ স্বাধীনতা দিবসে ঢাকা-শিলিগুড়ি যাত্রীবাহী ট্রেন চলাচলের মধ্য দিয়ে।