ঢাকা ০৯:০২ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৭ মে ২০২৪, ১৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

নামাজের আগে-পরে মসজিদে গণজমায়েত নিষিদ্ধ

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৯:৪৫:৩৬ অপরাহ্ন, বুধবার, ৭ এপ্রিল ২০২১ ১৮০ বার পড়া হয়েছে
ভয়েস একাত্তর অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

ভয়েস রিপোর্ট, ঢাকা

করোনার সংক্রমণ  আশঙ্কাজনক হারে বেড়ে গিয়েছে। সংক্রমণের উর্ধগতি রুখতে  দেশের সকল মসজিদে জুমা, ওয়াক্তের নামাজ এবং অন্য ধর্মীয় উপাসনালয়ে প্রার্থনার আগে ও পরে গণজমায়েত নিরুৎসাহিত করাসহ বুধবার বেশ কিছু নির্দেশনা দিয়েছে ধর্ম মন্ত্রক। সকল ধর্মপ্রাণ ব্যক্তিকে এসব নির্দেশনা পালনের অনুরোধ জানানো হয়েছে।

নির্দেশনায় বলা হয়েছে, জুমা ও অন্য ওয়াক্তের নামাজ এবং প্রার্থনার আগে-পরে মসজিদ ও অন্য ধর্মীয় উপাসনালয়ে কোনো প্রকার সভা-সমাবেশ করা নিষিদ্ধ। মসজিদে সামাজিক দূরত্ব ও স্বাস্থ্যবিধি অনুসরণ করে তারাবিসহ অন্য নামাজ আদায় করতে হবে। অন্য ধর্মীয় উপাসনালয়ে সামাজিক দূরত্ব ও স্বাস্থ্যবিধি অনুসরণ করে প্রার্থনার নির্দেশনা দেয়া হয়েছে।

প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের ১৮ দফা এবং মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের নির্দেশনা অনুযায়ী ধর্ম বিষয়ক মন্ত্রক থেকে জারি করা সব নির্দেশনা সংশ্লিষ্ট সবাইকে মেনে চলতে হবে। এতে আরও বলা হয়, উল্লিখিত নির্দেশনা লঙ্ঘিত হলে স্থানীয় প্রশাসন ও আইন শৃঙ্খলা নিয়ন্ত্রণকারী বাহিনী সংশ্লিষ্ট দায়িত্বশীলদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেবেন।

নির্দেশনায় প্রাণঘাতী করোনা ভাইরাস সংক্রমণ রোধে স্থানীয় প্রশাসন, আইনশৃঙ্খলা নিয়ন্ত্রণকারী বাহিনী, ইসলামিক ফাউন্ডেশনের কর্মকর্তা-কর্মচারী এবং সংশ্লিষ্ট মসজিদ ও অন্যান্য ধর্মীয় উপাসনালয়ের পরিচালনা কমিটিকে উল্লিখিত নির্দেশনা বাস্তবায়নের অনুরোধ জানানো হয়েছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published.

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপলোডকারীর তথ্য
ট্যাগস :

নামাজের আগে-পরে মসজিদে গণজমায়েত নিষিদ্ধ

আপডেট সময় : ০৯:৪৫:৩৬ অপরাহ্ন, বুধবার, ৭ এপ্রিল ২০২১

ভয়েস রিপোর্ট, ঢাকা

করোনার সংক্রমণ  আশঙ্কাজনক হারে বেড়ে গিয়েছে। সংক্রমণের উর্ধগতি রুখতে  দেশের সকল মসজিদে জুমা, ওয়াক্তের নামাজ এবং অন্য ধর্মীয় উপাসনালয়ে প্রার্থনার আগে ও পরে গণজমায়েত নিরুৎসাহিত করাসহ বুধবার বেশ কিছু নির্দেশনা দিয়েছে ধর্ম মন্ত্রক। সকল ধর্মপ্রাণ ব্যক্তিকে এসব নির্দেশনা পালনের অনুরোধ জানানো হয়েছে।

নির্দেশনায় বলা হয়েছে, জুমা ও অন্য ওয়াক্তের নামাজ এবং প্রার্থনার আগে-পরে মসজিদ ও অন্য ধর্মীয় উপাসনালয়ে কোনো প্রকার সভা-সমাবেশ করা নিষিদ্ধ। মসজিদে সামাজিক দূরত্ব ও স্বাস্থ্যবিধি অনুসরণ করে তারাবিসহ অন্য নামাজ আদায় করতে হবে। অন্য ধর্মীয় উপাসনালয়ে সামাজিক দূরত্ব ও স্বাস্থ্যবিধি অনুসরণ করে প্রার্থনার নির্দেশনা দেয়া হয়েছে।

প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের ১৮ দফা এবং মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের নির্দেশনা অনুযায়ী ধর্ম বিষয়ক মন্ত্রক থেকে জারি করা সব নির্দেশনা সংশ্লিষ্ট সবাইকে মেনে চলতে হবে। এতে আরও বলা হয়, উল্লিখিত নির্দেশনা লঙ্ঘিত হলে স্থানীয় প্রশাসন ও আইন শৃঙ্খলা নিয়ন্ত্রণকারী বাহিনী সংশ্লিষ্ট দায়িত্বশীলদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেবেন।

নির্দেশনায় প্রাণঘাতী করোনা ভাইরাস সংক্রমণ রোধে স্থানীয় প্রশাসন, আইনশৃঙ্খলা নিয়ন্ত্রণকারী বাহিনী, ইসলামিক ফাউন্ডেশনের কর্মকর্তা-কর্মচারী এবং সংশ্লিষ্ট মসজিদ ও অন্যান্য ধর্মীয় উপাসনালয়ের পরিচালনা কমিটিকে উল্লিখিত নির্দেশনা বাস্তবায়নের অনুরোধ জানানো হয়েছে।