ঢাকা ০৮:৫২ অপরাহ্ন, শনিবার, ২০ এপ্রিল ২০২৪, ৭ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

চুমুক থেকে বিধ্বংসী আগুনের সূত্রপাত, মৃত ৪৬, গ্রেপ্তার ৩

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ১০:০৭:১৫ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১ মার্চ ২০২৪ ১২১ বার পড়া হয়েছে
ভয়েস একাত্তর অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

ভবনে নিচ তলায় আগুন লাগার পর তা নেভানোর চেষ্টা করছেন কেউ কেউ ভিডিও সংগ্রহ করেছে ফায়ার সার্ভিসের

 

বিশেষ প্রতিনিধি

বেইলী রোডে ভবন নীচতলায় চা-কফির দোকান চুমুক থেকেই আগুনের সূত্রপাত। চায়ের দোকানে আগুন লাগার পর তা নেভানোর চেষ্টা করছেন কেউ কেউ। এমন একটি ভিডিও সংগ্রহ করেছে ফায়ার সার্ভিস।

আগুনের ঘটনায় এখনও পর্যন্ত ৪৬জনের মারা গিয়েছেন। চিকিৎসাধীন আরও প্রায় আর্ধশত ব্যক্তি অবস্থা আশঙ্কাজনক।

ভয়াবহ আগুনের ঘটনায় ৩ জনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। এদের মধ্যে রয়েছে, চুমুক নামের চা-কপির দোকানের মালিক আনোয়ারুল হক ও শফিকুর রহমান এবং বিরিয়ানির দোকান কাচ্চি ভাইয়ের কর্মকর্তা জয়নুদ্দিন জিসান।

শুক্রবার সন্ধ্যায় ঢাকা মহানগর পুলিশের মিডিয়া সেন্টারে সাংবাদিকদের এসব তথ্য জানিয়েছেন, মহানগর পুলিশের অতিরিক্ত কমিশনার খ. মহিদ উদ্দিন। ভবনের নিচতলার খাবার দোকান থেকে আগুনের সূত্রপাত হয়েছে। এই অবহেলার কারণেই এই হতাহতের ঘটনার অভিযোগে পুলিশ মামলা করবে। পাশাপাশি মৃত কোন ব্যক্তির পরিবারের যে কেউ মামলা করতে পারবেন। আটকদের ব্যক্তিদের জিজ্ঞাসাবাদ করছে পুলিশ।

ফায়ার সার্ভিসেরও দাবি ভবনের নীচতলার চুমুক চা-কফির দোকান থেকেই আগুনের সূত্রপাত। ভবনে নিচ তলায় আগুন লাগার পর তা নেভানোর চেষ্টা করছেন কেউ কেউ। স্থানীয়দের কাছ থেকে সংগ্রহ করা এমন একটি ভিডিও ফায়ার সার্ভিসের হস্তগত হয়েছে। যে ভিডিওটি তদন্তের বড় আলামত বলে মনে করছে ফায়ার সার্ভিস।

 

 

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published.

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপলোডকারীর তথ্য
ট্যাগস :

চুমুক থেকে বিধ্বংসী আগুনের সূত্রপাত, মৃত ৪৬, গ্রেপ্তার ৩

আপডেট সময় : ১০:০৭:১৫ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১ মার্চ ২০২৪

ভবনে নিচ তলায় আগুন লাগার পর তা নেভানোর চেষ্টা করছেন কেউ কেউ ভিডিও সংগ্রহ করেছে ফায়ার সার্ভিসের

 

বিশেষ প্রতিনিধি

বেইলী রোডে ভবন নীচতলায় চা-কফির দোকান চুমুক থেকেই আগুনের সূত্রপাত। চায়ের দোকানে আগুন লাগার পর তা নেভানোর চেষ্টা করছেন কেউ কেউ। এমন একটি ভিডিও সংগ্রহ করেছে ফায়ার সার্ভিস।

আগুনের ঘটনায় এখনও পর্যন্ত ৪৬জনের মারা গিয়েছেন। চিকিৎসাধীন আরও প্রায় আর্ধশত ব্যক্তি অবস্থা আশঙ্কাজনক।

ভয়াবহ আগুনের ঘটনায় ৩ জনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। এদের মধ্যে রয়েছে, চুমুক নামের চা-কপির দোকানের মালিক আনোয়ারুল হক ও শফিকুর রহমান এবং বিরিয়ানির দোকান কাচ্চি ভাইয়ের কর্মকর্তা জয়নুদ্দিন জিসান।

শুক্রবার সন্ধ্যায় ঢাকা মহানগর পুলিশের মিডিয়া সেন্টারে সাংবাদিকদের এসব তথ্য জানিয়েছেন, মহানগর পুলিশের অতিরিক্ত কমিশনার খ. মহিদ উদ্দিন। ভবনের নিচতলার খাবার দোকান থেকে আগুনের সূত্রপাত হয়েছে। এই অবহেলার কারণেই এই হতাহতের ঘটনার অভিযোগে পুলিশ মামলা করবে। পাশাপাশি মৃত কোন ব্যক্তির পরিবারের যে কেউ মামলা করতে পারবেন। আটকদের ব্যক্তিদের জিজ্ঞাসাবাদ করছে পুলিশ।

ফায়ার সার্ভিসেরও দাবি ভবনের নীচতলার চুমুক চা-কফির দোকান থেকেই আগুনের সূত্রপাত। ভবনে নিচ তলায় আগুন লাগার পর তা নেভানোর চেষ্টা করছেন কেউ কেউ। স্থানীয়দের কাছ থেকে সংগ্রহ করা এমন একটি ভিডিও ফায়ার সার্ভিসের হস্তগত হয়েছে। যে ভিডিওটি তদন্তের বড় আলামত বলে মনে করছে ফায়ার সার্ভিস।