শনিবার, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০২:০২ অপরাহ্ন

কোরবানীর পশুর চামড়া পাচাররোধে কঠোর ব্যবস্থা নেবে

ভয়েস রিপোর্ট
  • Update Time : বৃহস্পতিবার, ২৪ জুন, ২০২১
  • ৫২ Time View

কোনবানীর ঈদে অনলাইনে কেনাকাটার আহ্বান স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর

কোভিড পরিস্থিতির বিষয়টি বিবেচনায় নিয়ে কোরবানীর পশু কেনাবেচায় অলনাইনে করার আহ্বান জানিয়েছে স্বারাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল। পশুর হাটে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার সেবার বিষয়েও বৈঠকে আলোচনা হয়েছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, অতিমারি চলছে। যেসব গরু ব্যবসায়ীরা আসবেন, তারা যেন স্বাস্থ্যসম্মতভাবে আসেন সে বিষয়ে আমরা নজর রাখব।

কোরবানীর পশুর চামড়া কেনাবেচনার সিন্ডিকেট রোধে ঈদের আগেই চামড়ার দাম নির্ধারণ করে দেওয়া হবে। চামড়া পাচাররোধেও আইনশৃঙ্খলা বাহিনী কঠোর ব্যবস্থা নেবে। স্বারাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ঈদের সময় নিত্যপণের মূল্য বাড়ানো বন্ধ করতে এবং ভেজাল রোধে ভ্রাম্যমাণ আদালত থাকবে।

ঈদের বন্ধের সময় সারাদেশের আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে ও নিরাপত্তা বজায় রাখতে জোরদার ব্যবস্থা রাখা হবে। চুরি, ডাকাতিসহ ও সন্ত্রাসী কার্যক্রম বন্ধে গোয়েন্দা নজরদারি বাড়ানো কথা জানিয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, পুলিশ-র‌্যাবের টহল বাড়ানো হবে। স্থায়ী ও অস্থায়ী পশুর হাটে নিরাপত্তার ব্যবস্থা করা হবে।

 

বৃহস্পতিবার অপরাহ্নে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকে ঈদুল আজহায় আইন শৃঙ্খলা বিষয়ক সভা শেষে এসব কথা বলেন স্বরষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল।

মন্ত্রী বলেন, করোনাভাইরাস বিবেচনায় অনলাইন কেনাকাটায় উৎসাহ করার পাশাপাশি পশুর হাটে অস্থায়ী পুলিশ ক্যাম্প বসানো হবে। পশুর হাটে জালনোট শনাক্তকরণ মেশিন ও অজ্ঞান ও মলম পার্টি প্রতিরোধে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। ঈদের সময় ব্যবসায়ীদের টাকা পরিবহনের জন্য পুলিশ সহযোগিতা করবে।

যানজন নিরসনে আনসার মোতায়েনের পাশাপাশি যানজটপ্রবণ এলাকায় ওয়াচ টাওয়ার বসানো হবে।
টঙ্গি থেকে গাজীপুরের রাস্তা এবং যমুনা ব্রিজের ওখানে যানজট কমাতে সড়ক পরিবহন বিভাগকে ব্যবস্থা নেওয়ার কথা বলা হয়েছে।

কোরবানির পশু পরিবহনের ট্রাক ও নৌযানে চাঁদাবাজি বন্ধে কঠোর নজরদারি থাকবে উল্লেখ করে স্বারাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, পশু বোঝাই যান জোরপূর্বক কোনো জায়গায় থামানো যাবে না।

শিল্প এলাকায় নাশকতা বন্ধে গোয়েন্দারা সজাগ থাকবে। ফেরিঘাট যানজট মুক্ত রাখতে প্রস্তুতি নেওয়া হবে। নৌযানে অতিরিক্ত যাত্রী পরিবহন নিষিদ্ধ।

একই সঙ্গে সড়ক, মহাসড়কসহ যে কোনো জায়গায় দুর্ঘটনা বন্ধে ফায়ার সার্ভিস, অ্যাম্বুলেন্স, কুইক রেন্সপন্স টিম প্রস্তুত রাখা হবে।

শ্রমিকদের বেতন দিতে মালিকদের প্রতিশ্রুতির কথা উল্লেখ করে কামাল তৈরি পোশাকসহ সব শিল্প কারখানার বেতন নির্দিষ্ট সময়ে দেওয়ার জন্য বিজিএমইএ, বিকেএমইএসহ সংশ্লিষ্টদের আহ্বান জানান স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী।

লকডাউন বাস্তবায়নের সংস্থা নিরাপত্তা বাহিনী নয়, বাস্তবায়ন সংস্থা স্বাস্থ্য অধিদপ্তর। আমাদের নিরাপত্তা বাহিনীকে তারা অনুরোধ করছেন, সে অনুযায়ী নিরাপত্তা বাহিনী কাজ করছে। তারা যেখানে লকডাউন করার কথা বলেন, নিরাপত্তা বাহিনী সেখানে কাজ করে।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
© All rights reserved © 2017 voiceekattor
কারিগরি সহযোগিতায়: সোহাগ রানা
11223