ঢাকা ১০:৩০ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৭ মে ২০২৪, ১৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

এক্সারসাইজ টাইগার লাইটনিং-৪ ২০২৩ এর উদ্বোধন

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ১০:১৮:১৮ অপরাহ্ন, রবিবার, ৫ মার্চ ২০২৩ ৫৯ বার পড়া হয়েছে
ভয়েস একাত্তর অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

ছবি : আইএসপিআর

ইনস্টিটিউট অব পিস সাপোর্ট অপারেশন ট্রেনিং (বিপসট) এর কমান্ড্যান্ট মেজর জেনারেল আ স ম রিদওয়ানুর রহমান প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে রবিবার রাজেন্দ্রপুর সেনানিবাসে এক্সারসাইজ টাইগার লাইটনিং-৪ ২০২৩ এর উদ্বোধন করেন।

এ সময় তিনি বলেন, বাংলাদেশ সেনাবাহিনী এবং যুক্তরাষ্ট্রের প্যাসিফিক আর্মি কমান্ড (USARPAC) কর্তৃক যৌথভাবে আয়োজিত শান্তি সহায়তা কার্যক্রমের উপর একটি দ্বিপাক্ষিক অনুশীলন রাজেন্দধপুর সেনানিবাসে অনুষ্ঠিত হচ্ছে। পধতিকূল নিরাপত্তা পরিবেশ পরিস্থিতির সঠিক মূল্যায়ন, কার্যকর পরিকল্পনা প্রণয়ন এবং আকস্মিক চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় তড়িৎ ব্যবস্থা গ্রহণে
অংশগধহণকারীদের দক্ষ করে গড়ে তোলার উদ্দেশ্যেই এই অনুশীলনের আয়োজন করা হয়েছে।

পাশাপাশি এই অনুশীলনে উভয় দেশের বিশেষজ্ঞদের মধ্যে কম্ব্যাট লাইফ সেভিং, মাইন রেজিসটেন্স এ্যাম্বুস প্রটেকটেড (MRAP) ভেহিকল, কাউন্টার ইম্পেধাভাইজড এক্সপ্লোসিভ ডিভাইস (C-IED), কর্ডন এন্ড সার্চ অপারেশন এবং চেকপোষ্ট স্থাপন ও পরিচালনা ইত্যাদি বিষয়ের উপর জ্ঞান ও অভিজ্ঞতা বিনিময়ের আয়োজন করা হয়।

উল্লেখ্য, গত ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০২৩ তারিখ হতে এক্সারসাইজ টাইগার লাইটনিং-৪ প্রস্তুতি পর্ব শুরু হয়েছে, যার মূল কার্যক্রম রবিবার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের মাধ্যমে শুরু হলো। অনুশীলন টাইগার লাইটনিং-৪ এর আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন ঘোষণাকালে কমান্ড্যান্ট বিপসট বলেন, এক্সারসাইজ টাইগার লাইটনিং
বাংলাদেশ সেনাবাহিনী এবং যু৩রাষ্টেধর সেনাবাহিনীর মধ্যে বিদ্যমান সম্পর্ককে আরও গতিশালী করতে কার্যকর অবদান রাখবে।

তিনি আরো বলেন, বাংলাদেশ সশস্ত্র বাহিনীর রয়েছে জাতিসংঘ শান্তিরক্ষা মিশনের ক্সবরী পরিবেশে সফল অভিযান পরিচালনার সমৃদ্ধ ইতিহাস। অপরদিকে যুক্তরাষ্ট্রের সশস্ত্র বাহিনীর রয়েছে বিভিন্ন নিরাপত্তা পরিস্থিতিতে বিশ্বব্যাপী সফলভাবে কাজ করার ব্যাপক অভিজ্ঞতা। এক্ষেত্রে একে অপরের সাথে অভিজ্ঞতা বিনিময়ের মাধ্যমে উভয় দেশের সেনাবাহিনী লাভবান হবে। পরিশেষে এই অনুশীলন সুন্দরভাবে পরিকল্পনার জন্য তিনি বিপসট এবং যুক্তরাষ্ট্রের আর্মি প্যাসিফিক কমান্ড ও ওরিগন ন্যাশনাল গার্ডসহ সংশ্লিষ্ট সকলকে ধন্যবাদ জানিয়ে অনুশীলনের সার্বিক সাফল্য কামনা করেন।

যুক্তরাষ্টেধর প্যাসিফিক আর্মি কমান্ড (টঝঅজচঅঈ) এর পক্ষ হতে বিধগেডিয়ার জেনারেল গেধগরী থমাস ডে, ল্যান্ড কম্পোনেন্ট কমান্ডার, ওরিগন ন্যাশনাল গার্ড এই অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে বক্তব্য প্রদান করেন। অনুশীলনে বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর সাথে মার্কিন প্যাসিফিক আর্মি কমান্ড এর মোট ৭২ জন সেনাসদস্য অংশগ্রহণ করেন।

বাংলাদেশ ও যুক্তরাষ্টেধর মাধ্যে আঞ্চলিক এবং বৈশ্বিক নিরাপত্তা বিধান, সন্ত্রাস দমন, দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও মানবিক সহায়তা ইত্যাদি বিষয়ে নিবিড় সহযোগিতা বিদ্যমান রয়েছে। বাংলাদেশ পদাতিক দুর্যোগসহ যে কোন বৈশিক হুমকি মোকাবেলায় বদ্ধপরিকর এবং সব সময়ই যুক্তরাষ্ট্রসহ অন্যান্য অংশীদারদের সাথে সমবেতভাবে কাজ করে আসছে।

এই ক্ষেত্রে দ্বিপাক্ষিক এবং বহু-পাক্ষিক অনুশীলন পরস্পরের মধ্যে দক্ষতা ও জ্ঞানের সমন¡য় সাধন এবং অভিজ্ঞতার বিনিময়ে উল্লেখযোগ্য অবদান রাখে। সেই লক্ষ্যকে সামনে রেখে ২০১৭ ও ২০২১ সালে টাইগার লাইটনিং ১ ও ২ যুক্তরাষ্ট্রের এবং গত বছর টাইগার লাইটনিং-৩ বিপসট, বাংলাদেশে আয়োজন করা হয়। এরই ধারাবাহিকতায় এবারের অনুশীলনটি চতুর্থবারের মত বাংলাদেশে অনুষ্ঠিত হচ্ছে।

আইএসপিআর

 

 

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published.

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপলোডকারীর তথ্য
ট্যাগস :

এক্সারসাইজ টাইগার লাইটনিং-৪ ২০২৩ এর উদ্বোধন

আপডেট সময় : ১০:১৮:১৮ অপরাহ্ন, রবিবার, ৫ মার্চ ২০২৩

ছবি : আইএসপিআর

ইনস্টিটিউট অব পিস সাপোর্ট অপারেশন ট্রেনিং (বিপসট) এর কমান্ড্যান্ট মেজর জেনারেল আ স ম রিদওয়ানুর রহমান প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে রবিবার রাজেন্দ্রপুর সেনানিবাসে এক্সারসাইজ টাইগার লাইটনিং-৪ ২০২৩ এর উদ্বোধন করেন।

এ সময় তিনি বলেন, বাংলাদেশ সেনাবাহিনী এবং যুক্তরাষ্ট্রের প্যাসিফিক আর্মি কমান্ড (USARPAC) কর্তৃক যৌথভাবে আয়োজিত শান্তি সহায়তা কার্যক্রমের উপর একটি দ্বিপাক্ষিক অনুশীলন রাজেন্দধপুর সেনানিবাসে অনুষ্ঠিত হচ্ছে। পধতিকূল নিরাপত্তা পরিবেশ পরিস্থিতির সঠিক মূল্যায়ন, কার্যকর পরিকল্পনা প্রণয়ন এবং আকস্মিক চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় তড়িৎ ব্যবস্থা গ্রহণে
অংশগধহণকারীদের দক্ষ করে গড়ে তোলার উদ্দেশ্যেই এই অনুশীলনের আয়োজন করা হয়েছে।

পাশাপাশি এই অনুশীলনে উভয় দেশের বিশেষজ্ঞদের মধ্যে কম্ব্যাট লাইফ সেভিং, মাইন রেজিসটেন্স এ্যাম্বুস প্রটেকটেড (MRAP) ভেহিকল, কাউন্টার ইম্পেধাভাইজড এক্সপ্লোসিভ ডিভাইস (C-IED), কর্ডন এন্ড সার্চ অপারেশন এবং চেকপোষ্ট স্থাপন ও পরিচালনা ইত্যাদি বিষয়ের উপর জ্ঞান ও অভিজ্ঞতা বিনিময়ের আয়োজন করা হয়।

উল্লেখ্য, গত ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০২৩ তারিখ হতে এক্সারসাইজ টাইগার লাইটনিং-৪ প্রস্তুতি পর্ব শুরু হয়েছে, যার মূল কার্যক্রম রবিবার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের মাধ্যমে শুরু হলো। অনুশীলন টাইগার লাইটনিং-৪ এর আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন ঘোষণাকালে কমান্ড্যান্ট বিপসট বলেন, এক্সারসাইজ টাইগার লাইটনিং
বাংলাদেশ সেনাবাহিনী এবং যু৩রাষ্টেধর সেনাবাহিনীর মধ্যে বিদ্যমান সম্পর্ককে আরও গতিশালী করতে কার্যকর অবদান রাখবে।

তিনি আরো বলেন, বাংলাদেশ সশস্ত্র বাহিনীর রয়েছে জাতিসংঘ শান্তিরক্ষা মিশনের ক্সবরী পরিবেশে সফল অভিযান পরিচালনার সমৃদ্ধ ইতিহাস। অপরদিকে যুক্তরাষ্ট্রের সশস্ত্র বাহিনীর রয়েছে বিভিন্ন নিরাপত্তা পরিস্থিতিতে বিশ্বব্যাপী সফলভাবে কাজ করার ব্যাপক অভিজ্ঞতা। এক্ষেত্রে একে অপরের সাথে অভিজ্ঞতা বিনিময়ের মাধ্যমে উভয় দেশের সেনাবাহিনী লাভবান হবে। পরিশেষে এই অনুশীলন সুন্দরভাবে পরিকল্পনার জন্য তিনি বিপসট এবং যুক্তরাষ্ট্রের আর্মি প্যাসিফিক কমান্ড ও ওরিগন ন্যাশনাল গার্ডসহ সংশ্লিষ্ট সকলকে ধন্যবাদ জানিয়ে অনুশীলনের সার্বিক সাফল্য কামনা করেন।

যুক্তরাষ্টেধর প্যাসিফিক আর্মি কমান্ড (টঝঅজচঅঈ) এর পক্ষ হতে বিধগেডিয়ার জেনারেল গেধগরী থমাস ডে, ল্যান্ড কম্পোনেন্ট কমান্ডার, ওরিগন ন্যাশনাল গার্ড এই অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে বক্তব্য প্রদান করেন। অনুশীলনে বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর সাথে মার্কিন প্যাসিফিক আর্মি কমান্ড এর মোট ৭২ জন সেনাসদস্য অংশগ্রহণ করেন।

বাংলাদেশ ও যুক্তরাষ্টেধর মাধ্যে আঞ্চলিক এবং বৈশ্বিক নিরাপত্তা বিধান, সন্ত্রাস দমন, দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও মানবিক সহায়তা ইত্যাদি বিষয়ে নিবিড় সহযোগিতা বিদ্যমান রয়েছে। বাংলাদেশ পদাতিক দুর্যোগসহ যে কোন বৈশিক হুমকি মোকাবেলায় বদ্ধপরিকর এবং সব সময়ই যুক্তরাষ্ট্রসহ অন্যান্য অংশীদারদের সাথে সমবেতভাবে কাজ করে আসছে।

এই ক্ষেত্রে দ্বিপাক্ষিক এবং বহু-পাক্ষিক অনুশীলন পরস্পরের মধ্যে দক্ষতা ও জ্ঞানের সমন¡য় সাধন এবং অভিজ্ঞতার বিনিময়ে উল্লেখযোগ্য অবদান রাখে। সেই লক্ষ্যকে সামনে রেখে ২০১৭ ও ২০২১ সালে টাইগার লাইটনিং ১ ও ২ যুক্তরাষ্ট্রের এবং গত বছর টাইগার লাইটনিং-৩ বিপসট, বাংলাদেশে আয়োজন করা হয়। এরই ধারাবাহিকতায় এবারের অনুশীলনটি চতুর্থবারের মত বাংলাদেশে অনুষ্ঠিত হচ্ছে।

আইএসপিআর